kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ আশ্বিন ১৪২৮। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৫ সফর ১৪৪৩

টিভির রিমোট কেড়ে নিলেন বাবা, অভিমানে আত্মহত্যা করল মেয়ে

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি   

২৭ জুলাই, ২০২১ ২২:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিভির রিমোট কেড়ে নিলেন বাবা, অভিমানে আত্মহত্যা করল মেয়ে

যশোরের অভয়নগরে টিভির রিমোট কেড়ে নেওয়ায় বাবার ওপর অভিমান করে শিমু রাণী বিশ্বাস (১১) নামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে অভয়নগর থানা পুলিশ। এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। নওয়াপাড়া মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী নিহত শিমু রাণী বিশ্বাস উপজেলার মধ্যপুর গ্রামের মুক্ত কুমার বিশ্বাসের মেয়ে।

নিহতের বাবা মুক্ত কুমার বিশ্বাস কালের কণ্ঠকে জানান, প্রতিদিন বড় মেয়ে শিমুর সঙ্গে কথা বলে আমি বাড়ি থেকে বের হই। ঘটনার দিন মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে শিমুর সঙ্গে কথা বলতে গেলে সে টিভি দেখছিল। রাগ করে মেয়ের হাতে থাকা টিভির রিমোট কেড়ে নেই।

এরপর লেখাপড়া নিয়ে ওকে বকাঝকা করে আমি বাজারে চলে যায়। কিছুক্ষণ পর জানতে পারি আমার শিমু ঘরের ডাবার সঙ্গে গলায় গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে শিমুকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. মুক্তাদিরুল হক শুভ জানান, বেলা পৌনে ১১টার সময় শিমু রাণী বিশ্বাস নামে এক শিশুকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়। তার গলায় ফাঁস লাগানো চিহ্ন ছিল।

এ ব্যাপারে অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম শামীম হাসান জানান, দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে শিমু বিশ্বাস নামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর গলায় ফাঁস দেওয়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসীর কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত করা হয়নি। তবে অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। 



সাতদিনের সেরা