kalerkantho

শনিবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৮। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৭ সফর ১৪৪৩

এটিই লাখ টাকার ব্রিজ?

বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি   

২৭ জুলাই, ২০২১ ১৬:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এটিই লাখ টাকার ব্রিজ?

বরিশালের বানারীপাড়ার উদয়কাঠিতে আয়রন ব্রিজের স্থলে সুপারি গাছের সাঁকো নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বরিশাল জেলা পরিষদ পরিষদ থেকে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে বানারীপাড়ার উদয়কাঠি ইউনিয়নের পূর্ব উদয়কাঠি মুন্সি বাড়ির সামনে একটি আয়রন ব্রিজ নির্মাণের জন্য লাখ টাকার বরাদ্দ দেওয়া হয়।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, পূর্বের বাঁশ ও সুপারি গাছের সাঁকো সংস্কার করে চারটি লোহার ভিমের ওপর তিনটি সুপারি গাছ দিয়ে সাঁকো নির্মাণ করা হয়েছে। সেখানে থাকা নামফলকে উদয়কাঠির মুন্সি বাড়ির সামনে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে এক লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে আয়রন ব্রিজ নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন ও অর্থায়নে জেলা পরিষদ লেখা রয়েছে। 

এ সংক্রান্ত বরাদ্দের নামফলকে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নাম লেখা থাকার কথা থাকলেও অর্থায়নে ও বাস্তবায়নে জেলা পরিষদের নাম লেখা রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে উদয়কাঠি ইউনিয়নের সন্তান বরিশাল জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা বলেন, এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে পূর্ব উদয়কাঠি গ্রামের মুন্সি বাড়ির সামনের খালে আয়রণ ব্রিজ নির্মাণের জন্য জেলা পরিষদ থেকে আমি এক লাখ টাকা বরাদ্দ দেই। জেলা পরিষদে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি দিয়ে ব্রিজ ও রাস্তা নির্মাণ করার বিধান না থাকায় টেন্ডার প্রক্রিয়ায় লটারির মাধ্যমে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওই কাজটি পায়। ঠিকাদার লোহার ব্রিজ নির্মাণ না করার বিষয়টি জেলা পরিষদের তৎকালীণ প্রকৌশলী গোলাম মোস্তফাকে জানিয়ে সরেজমিন পরির্দশনের কথা বলেছিলাম। লকডাউন উঠে অফিস খোলার পরে ঠিকাদারকে খুঁজে বের করে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলেন তিনি। 

বরিশাল জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহীর অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা স্থানীয় সরকার উপ-সচিব (ডিডিএলজি) মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



সাতদিনের সেরা