kalerkantho

শুক্রবার । ২ আশ্বিন ১৪২৮। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৯ সফর ১৪৪৩

স্থলবন্দর দেখে চাচা ফিরল লাশ হয়ে, ভাতিজা হাসপাতালে!

ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৭ জুলাই, ২০২১ ০০:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্থলবন্দর দেখে চাচা ফিরল লাশ হয়ে, ভাতিজা হাসপাতালে!

নিহত তাইজুল ইসলাম

ভূরুঙ্গামারীর সোনাহাট স্থলবন্দর দেখতে এসে ভাতিজার জায়গা হলো হাসপাতালে আর চাচা ফিরল লাশ হয়ে। রবিবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় চাচা ভাতিজা দুজনে মোটরসাইকেলে স্থলবন্দর দেখে বাড়ি ফেরার পথে ভূরুঙ্গামারী কুড়িগ্রাম মহাসড়কে জয়মনিরহাট ইউনিয়নের আইকুমারীভাতি নামক স্থানে মারাত্মক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান চাচা তাইজুল ইসলাম (২৬)। ভাতিজা সবুজ মিয়া (২০) গুরুতর আহত হয়ে রংপুর মেডিক‍্যাল কলেজে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে।

তাইজুল ইসলাম কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার নাজিমখাঁ ইউনিয়নের কৃঞ্চপুর গ্রামের মঞ্জু মিয়ার ছেলে আর সবুজ মিয়া একই গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে।

জানা গেছে, তাইজুল ও সবুজ সম্পর্কে চাচা ভাতিজা। তারা রবিবার রাজারহাট থেকে মোটরসাইকেলে ভূরুঙ্গামারীর সোনাহাট স্থলবন্দর দেখতে আসেন। সন্ধ্যার দিকে স্থলবন্দর দেখে বাড়িতে ফেরার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে ভূরুঙ্গামারী-কুড়িগ্রাম মহাসড়ক ধরে যাচ্ছিল তারা।

ভূরুঙ্গামারী উপজেলার জয়মনিরহাট ইউনিয়নের আইকুমারীভাতি নামক স্থানে পৌঁছলে এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক তাঁদের মোটরসাইকেলটিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে দুজনই মারাত্মকভাবে আহত হন। স্থানীয়রা মুমূর্ষু অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করার সময় ঘটনাস্থলেই তাইজুল ইসলামের মৃত্যু হয়। অপর আরোহী সবুজকে গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন সড়ক দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ট্রাকটিকে আটক করে থানায় রাখা হয়েছিল। দুর্ঘটনার শিকার হওয়া তাদের স্বজনদের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না থাকায় ট্রাকটিকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।



সাতদিনের সেরা