kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

৬ দিন ধরে রাস্তায় পড়ে আছে কোরবানির পশুর চামড়া

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি   

২৬ জুলাই, ২০২১ ১১:০২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৬ দিন ধরে রাস্তায় পড়ে আছে কোরবানির পশুর চামড়া

দাম না থাকায় রাস্তার উপর স্তুপ করে পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে চামড়া। ছবি : কালের কণ্ঠ

কোরবানির পশুর চামড়ার বাজার ব্যবস্থা ও দাম নিয়ে হতাশ হয়ে পড়েছেন পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার চামড়া ব্যবসায়ীরা। এতে ব্যবসায়ীদের বাড়ির সামনে রাস্তায় যত্রতত্র চামড়া পড়ে রয়েছে। স্বল্পমূল্যে চামড়া ক্রয় করলেও সেই টাকা উঠাতে পারবেন কি না এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় দিন কাটছে তাদের। পাশাপাশি কম দামে চামড়া বিক্রি হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন এলাকার দরিদ্র ও অসহায় মানুষ।

জানা যায়, উপজেলার ১১৫টি গ্রামে সহস্রাধিক গরু ও এর কয়েক গুণ ছাগল এ বছর কোরবানি দেওয়া হয়। এসব পশুর চামড়া স্থানীয় অর্ধশতাধিক মৌসুমি ব্যবসায়ী কিনে উপজেলার স্থায়ী ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করেন। কিন্তু এ বছর সরকার বেঁধে দেওয়া নির্ধারিত মূল্যে চামড়া বিক্রি করতে পারেনি বলে অভিযোগ সাধারণ মানুষের। তবে কম মূল্যে চামড়া কিনেও লোকসানের আশঙ্কায় দিন কাটছে ব্যবসায়ীদের। এতে ক্রয়কৃত চামড়া ব্যবসায়ীরা রাস্তার পাশে যত্রতত্র জমা করে রেখেছেন। এর দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।

এদিকে কম মূল্যে চামড়া বিক্রি হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এলাকার দুস্থ ও অসহায় মানুষ। কয়েক বছর আগে যে চামড়া বিক্রি হতো দুই হাজার টাকা। সেই চামড়া এখন বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৫০০ টাকায়। এতে দুস্থরা তাদের প্রাপ্য চামড়া বিক্রির টাকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, ভাঙ্গুড়া বাজারের চামড়া ব্যবসায়ী হিমুন, শুটকা, পরেশসহ অন্যান্য ব্যবসায়ীরা মৌসুমি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চামড়া কিনে বাড়ির সামনে জড়ো করেছেন। এসব চামড়া প্রক্রিয়াজাতকরণের কাজ করলেও তা চলছে খুব ধীরগতিতে। এতে চামড়ার দুর্গন্ধে এলাকার মানুষের বসবাস করাসহ পথচারীদের চলাচল কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। ব্যবসায়ী হিমুনের বাড়ির সামনে প্রধান সড়কে প্রায় ২০০ গরুর চামড়া পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখতে দেখা যায়। অন্য ব্যবসায়ীরা এলাকাবাসীর চাপে চামড়া সড়ক থেকে সরিয়ে বাড়িতে নিয়ে প্রক্রিয়াজাত করছেন। তবে চামড়া বিক্রি করে লাভের মুখ দেখবেন কি না তা নিয়ে সংশয় রয়েছে সব ব্যবসায়ীরা।

হাসপাতাল পাড়ার বাসিন্দা শাকিব আহমেদ বলেন, কয়েক দিন ধরে রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া। এতে বৃষ্টিতে পানি জমা হয়ে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে। সরিয়ে নিতে বললেও ওই ব্যবসায়ী চামড়া সরাচ্ছে না। সবার কাছে অনুরোধ করে সে সময় চাচ্ছে।

চামড়া ব্যবসায়ী হিমুন বলেন, বাজারের অবস্থা ভালো না। যে দামে চামড়া কিনেছি সে টাকা উঠবে কি না চিন্তায় আছি। এ কারণে চামড়াপ্রক্রিয়া করে বাজারজাত করার জন্য অতিরিক্ত লোক নিয়ে বাড়তি ব্যয় না করে নিজেই কাজ করছি। তাই চামড়াপ্রক্রিয়াজাত করতে সময় লাগায় রাস্তায় পড়ে রয়েছে। তবে দ্রুত সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব।



সাতদিনের সেরা