kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ আশ্বিন ১৪২৮। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৫ সফর ১৪৪৩

গফরগাঁওয়ে অপমান সইতে না পেরে তরুণের আত্মহত্যা

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২৪ জুলাই, ২০২১ ০০:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গফরগাঁওয়ে অপমান সইতে না পেরে তরুণের আত্মহত্যা

প্রতীকী ছবি

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে নারীকে জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ায় অপমানিত হয়ে নয়ন (২০) নামে এক তরুণ ফাঁসিতে আত্মহত্যা করেছেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার বারবাড়িয়া ইউনিয়নের বাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নয়ন ওই গ্রামের গ্রাম পুলিশ সিরাজুল হকের ছেলে। 

শুক্রবার (২৩ জুলাই) দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছেন। এ ঘটনায় গফরগাঁও থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বারবাড়িয়া ইউনিয়নের বাড়া গ্রামের গ্রাম পুলিশ সিরাজুল হকের ছেলে নয়ন সৌদি আরব থেকে প্রায় এক বছর আগে ফিরে আসে। এ অবস্থায় ফেসবুকের মাধ্যমে পার্শ্ববর্তী গ্রামের এক নারীর সঙ্গে নয়নের সম্পর্ক তৈরি হয়। এর সূত্র ধরে নয়ন ও ওই নারীকে জড়িয়ে ফেইক আইডি থেকে কে বা কারা অপমানজনক পোস্ট করে। এলাকায় পোস্টটি ভাইরাল হলে লজ্জা ও অপমানে নয়ন বৃহস্পতিবার রাতে ঘরের ধর্নার সঙ্গে গলায় দড়ি বেঁধে ফাঁসিতে আত্মহত্যা করে। 

এ ঘটনায় নিহতের বাবা সিরাজুল হক গফরগাঁও থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছেন।

গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ অনুকুল সরকার বলেন, এ ঘটনায় দায়েরকৃত অপমৃত্যু মামলা ও ময়নাতদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিতে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।  



সাতদিনের সেরা