kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

শুকনা খাবার খেয়ে কাটল কোয়ারেন্টিন ঈদ

হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

২২ জুলাই, ২০২১ ১৫:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শুকনা খাবার খেয়ে কাটল কোয়ারেন্টিন ঈদ

ভারত থেকে ফিরেই আছেন কোয়ারেন্টিনে। এর মধ্যেই ঈদ। ঈদের খুশি চার দেয়ালের মধ্যেই কাটল দিনাজপুরের হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারত থেকে ফিরে আসা পাসপোর্টযাত্রীদের। এদিন তাদের কেউ কোনো খোঁজ নেয়নি। আবাসিক হোটেলে ২৪ যাত্রীর শুকনো খাবার খেয়ে পার হয় ঈদের দিন।

দিনাজপুরের হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ থাকার পর ভারতে আটকে থাকা পাসপোর্টযাত্রীদের দেশের অভ্যন্তরে আগমনে অনুমতি দেয় সরকার। ১৯ মে থেকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে এ পর্যন্ত ৩৩৭ জন পাসপোর্টযাত্রী ভারত থেকে দেশে প্রবেশ করেন। নিজ খরচে ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারিন্টিনে রাখা হয় এসব যাত্রীকে। এদের মধ্যে ৩১৩ জন ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন শেষে নিজ বাড়িতে ফিরেছেন। এখনো কোয়ারেন্টিনে আছেন ২৪ যাত্রী।

ঈদের দিন সবাই পরিবারপরিজন নিয়ে আনন্দ উপভোগ করলেও তারা নিজ দেশে ফিরেও রয়েছেন চার দেয়ালে বন্দি। ঈদের দিন তাদের ভাগ্যে জোটেনি কোনো উন্নত খাবার। তাদের আক্ষেপ- সরকার জেলখানা, হাসপাতাল, মাদরাসাসহ বিভিন্ন স্থানে ঈদের দিন উন্নত মানের খাবার পরিবেশন করলেও তাদের ভাগ্যে কোনো ভালো  মানের খাবার জোটেনি। প্রশাসনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি কেউ তাদের খোঁজ নেয়নি।

মিজানুর রহমানসহ ভুক্তভোগী পাসপোটযাত্রীরা জানান, তারা ভারত থেকে করোনা টেস্ট নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে দেশে আসার পর আবার দেশে প্রবেশ করেন। দেশে আসার পরও টেস্ট রিপোর্টে নেগেটিভ আসে। এর পরেও উপজেলা প্রশাসন তাদেরকে বাধ্যতামূলক নিজ খরচে আবাসিক হোটেলে কোয়ারেন্টিনে রেখেছে। আমাদের বেলায় যত কঠোর বিধি-নিষেধ। আমরা কেমন আছি কেউ খোঁজ নিচ্ছে না।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তৌহিদ আল হাসান জানান, এ পর্যন্ত ৩৩৭ জন ভারত থেকে করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে দেশে প্রবেশ করেন। তাদের মধ্যে পুনরায় করোনা টেস্ট করে ১৩ জনের নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুর-এ আলম জানান, এদের খোঁজখবর ও দেখভাল করার জন্য একজন কর্মকর্তার নেতৃত্বে একটি টিম রয়েছে। তারাই বিষয়টি দেখভাল করছেন।



সাতদিনের সেরা