kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

করোনায় খুলনার ৫ হাসপাতালে আরো ১০ মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক   

২২ জুলাই, ২০২১ ১২:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনায় খুলনার ৫ হাসপাতালে আরো ১০ মৃত্যু

খুলনার পাঁচ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরো ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার (২১ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে আজ বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) সকাল ৮টার মধ্যে মৃত্যু হয় তাঁদের। 

আজ বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) সকালে উল্লিখিত হাসপাতালগুলোর পক্ষ থেকে এসংক্রান্ত তথ্য জানানো হয়েছে।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের আওতাভুক্ত করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকাল পারসন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁরা সবাই করোনা পজিটিভ ছিলেন।

সম্প্রতি ২০০ শয্যায় উন্নীত হওয়া এ করোনা হাসপাতালে সকাল ৮টা পর্যন্ত ১১৬ জন রোগী ভর্তি ছিলেন। যার মধ্যে রেড জোনে ৪২ জন, ইয়েলো জোনে ৪২ জন, এইচডিইউতে ১৩ জন এবং আইসিইউতে ২০ জন চিকিৎসাধীন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন একজন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন আটজন।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে কোনো মৃত্যু হয়নি। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৪৪ জন। এ ছাড়া, ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে নতুন করে চারজন ভর্তি হয়েছেন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন সাতজন।

খুলনার শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. প্রকাশ চন্দ্র দেবনাথ জানান, ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের  ৪৫ শয্যার করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৪৫ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে আইসিইউতে ১০ জন চিকিৎসাধীন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চারজন ভর্তি হয়েছেন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিনজন। 

গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী গাজী মিজানুর রহমান জানান, ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালের ১৫০ শয্যার করোনা ইউনিটে ৬৩ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে আইসিইউতে সাতজন এবং এইচডিইউতে আটজন চিকিৎসাধীন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে পাঁচজন ভর্তি হয়েছেন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ছয়জন।

করোনা চিকিৎসায় নতুন যোগ হওয়া খুলনা সিটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালের ৮৭ শয্যার করোনা ইউনিটে বর্তমানে ৫৭ ভর্তি আছেন। এর মধ্যে আইসিইউতে ছয়জন এবং এইচডিইউতে ছয়জন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চারজন ভর্তি হয়েছেন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন সাতজন। 



সাতদিনের সেরা