kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

পুলিশসহ শতাধিক আহত

দুই দিন আগের ফুটবল খেলা নিয়ে ঈদের সকালে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়াল গ্রামবাসী

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি    

২১ জুলাই, ২০২১ ১৪:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুই দিন আগের ফুটবল খেলা নিয়ে ঈদের সকালে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়াল গ্রামবাসী

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে পুলিশসহ শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। আজ বুধবার ঈদুল আজহার দিন সকাল ৯টায় উপজেলার কলাবাড়ী ইউনিয়নের পাড়াকাটা গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, গত সোমবার (১৯ জুলাই) বিকেলে পাড়াকাটা গ্রামের কিশোররা দুভাগে ভাগ হয়ে স্থানীয় জনকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফুটবল খেলে। খেলায় জয়-পরাজয় নিয়ে উভয় পক্ষের মাঝে কথাকাটাকাটি হয়। 

এরই সূত্র ধরে আজ বুধবার সকালে পাড়াকাটা গ্রামের স্বপন গাইনের ছেলে সজল গাইনের (১৭) সাথে আজাহার মল্লিকের ছেলে জামাল মল্লিকের (৩৮) কথাকাটাকাটি হয়। এরপর দুদল গ্রামবাসী বিভক্ত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। খবর পেয়ে কোটালীপাড়া থানা ও ভাঙ্গারহাট নৌ-তদন্তকেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চলা সংঘর্ষে পুলিশসহ শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়। গুরুতর আহত রিফাত শেখ (১৮), জগদিশ ফলিয়া (৭০) ফায়জুল মল্লিক (২২), মৃদুল গাইন (৩২), শিবনাথ (৬৫), রুস্তুম মল্লিক (৬৪), বাবুল মল্লিক (২৮), ইমন হালদার (১৫), নুরে আলাম (১৫), নান্নু মল্লিক (৩৫), জসিম মোল্লি (৩৫), রনি মোল্লি (১৩), গবিন্দ গাইন (৩২), আশুদেব গাইন (২৯), তনময় গাই (৩৫), শুশান্ত গাইন (৩৯), উজ্জল গাইন (১৭), সজিব ফলিয়া (২১), নিখিল গাইন (৪১), রসময় গাইন (৪০), তরিকুল মোল্লা (১৭), রহিমা বেগম (৫৫), নাদেম মোল্লা (১৭) ,বিধান গাইন (৩০), নিমচাঁদ (৬০), কৌশিক গাইন (১৭), প্রদীপ গাইন (৫৫), জয় গাইন (১৫), অনিমেশ ফলিয়া (১৫), সম্রাট গাইন (১৫), সুজিৎ গাইন (২১), বিষ্ণু গাইন (৩৫) ও ভাঙ্গারহাট নৌ-তদন্তকেন্দ্রের এএসআই মাসুদ, কনস্টেবল মহাসীন গাজী, মাহাবুবুর রহমানকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

কোটালীপাড়া থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, এলাকার পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কোনো পক্ষ থেকেই এখন পর্যন্ত থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



সাতদিনের সেরা