kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজশিক্ষকসহ তিনজন নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

১৪ জুলাই, ২০২১ ১৬:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজশিক্ষকসহ তিনজন নিহত

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক শফিউল আজম, তার মামাতো ভাই এনামুল ইসলাম ও ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন নিহত হয়েছেন। আজ বুধবার সকাল ৭টার দিকে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের মধুপুর কলার হাটের কাছে এবং মঙ্গলবার রাতে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের মীর মশাররফ হোসেন সেতুর ওপর দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। পুলিশ তিনজনের মৃতদেহ মর্গে পাঠিয়েছে ময়নাতদন্তের জন্যে।

পুলিশ জানায়, শফিকুল আজম তার কর্মস্থল সাতক্ষীরা থেকে সকালে মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ি কুষ্টিয়ার আমলার খয়েরপুরে আসছিলেন। মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন তার মামাতো ভাই এনামুল ইসলাম। পথে মধুপুরে রডবাহী একটি ট্রাক তাদের মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই এনামুলের মৃত্যু হয় এবং কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পর শিক্ষক শফিউল আজমের মৃত্যু হয়। শফিউল আজম খয়েরপুর গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে। নিহত এনামুল পার্শবর্তী চরপাড়া গ্রামের আব্দুল গনি মন্ডলের ছেলে।

নিহত শিক্ষক শফিউলের ভায়রা স্বপন জানান, অসুস্থ মাকে দেখার জন্য শফিউল তার মামাতো ভাই এনামুলকে সঙ্গে নিয়ে সাতক্ষীরা থেকে কুষ্টিয়ার আমলার খয়েরপুরে আসছিল এবং সকাল ৭টার দিকে মধুপুরে এই দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। 

অন্যদিকে, ৯৯৯-এ কল পেয়ে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের মীর মশাররফ হোসেন সেতুর ওপর থেকে গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে পুলিশ চাল ও ইটভাটা ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিনের মৃতদেহ উদ্ধার করে। পাশেই তার পড়ে থাকা মোটারসাইকেটি পুলিশ উদ্ধার করে। পুলিশ এটি সড়ক দুর্ঘটনা বলে মনে করলেও নাসির উদ্দিনের স্বজনরা এটি রহস্যজনক মৃত্যু বলে দাবি করছেন।

নাসির উদ্দিনে ভাতিজা বাবু জানান, আমার চাচা শিলাইদহ থেকে রাতে একাই কুষ্টিয়া শহরে ফিরছিলেন। শরীরে আঘাতের চিহ্ন খাকলেও আমরা এটাকে সড়ক দুর্ঘটনা মনে করছি না।



সাতদিনের সেরা