kalerkantho

রবিবার । ১০ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৫ জুলাই ২০২১। ১৪ জিলহজ ১৪৪২

হাতিয়ায় ডুবল সিমেন্ট কাঁচামাল বোঝাই জাহাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১০ জুলাই, ২০২১ ২০:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাতিয়ায় ডুবল সিমেন্ট কাঁচামাল বোঝাই জাহাজ

প্রতীকী ছবি।

সিমেন্ট শিল্পের কাঁচামাল নিয়ে চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙর থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে হাতিয়া নতুন চ্যানেলের কাছে ডুবে গেছে লাইটার জাহাজ 'এমভি ফুলতলা-১'। জাহাজটি এমন স্থানে ডুবে যায়, যেখানে চারদিন আগে একটি বালুবাহি বলগেট ডুবে গেছিল। আজ শনিবার সকালে নৌ রুটের ৪ ও ৫নম্বর পজিশনের কাছে এই ঘটনা ঘটে।

জাহাজটি বহির্নোঙর থেকে ৮০০ টন সিমেন্ট শিল্পের কাঁচামাল বোঝাই করে ঢাকায় হাজী সেলিমের মালিকানাধীন মদিনা সিমেন্ট কারখানায় যাচ্ছিল। জাহাজে থাকা পণ্যের মালিকও হাজী সেলিম। আর জাহাজটির ধারনক্ষমতা ছিল এক হাজার টন।

অভিযোগ আছে, ছোট জাহাজের বুকিং নিতে ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট সেলের বরাদ্দ নিতে হয়। কিন্তু ফুলতলা-১ জাহাজটি কোনো অনুমতি ছাড়াই বহির্নোঙর থেকে পণ্য নিয়ে সরাসরি জাহাজটি ঢাকায় যাচ্ছিল। এ বিষয়ে জাহাজ মালিক আবদুল গফুর বলেন, এসব তথ্য হাজী সেলিমের মালিকানাধীন বিসমিল্লাহ নেভিগেশন জানে।  

জাহাজ মালিক আবদুল গফুরের দাবি, সেই বলগেটের সাথে ধাক্কা লেগেই দুর্ঘটনায় পড়ে ফুলতলা-১ জাহাজটি, পরে সেটি ডুবে যায়। তবে কেউ হতাহত হয়নি। তবে জানা গেছে, জাহাজের কারিগরি ত্রুটি থাকায় সেটি দুর্ঘটনায় পড়ে এবং ওই স্থানের কাছেই ডুবে যায়।

বাংলাদেশ লাইটার জাহাজ শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি নবী আলম বলেন, বিআইডব্লিউটিএ’কে আমরা অনেকবার অবহিত করেছি ডুবে যাওয়া বলগেটের স্থানে বয়া দিয়ে মার্কিং করার জন্য। কিন্তু সেটি না করায় ফুলতলা-১ জাহাজটি ডুবেছে। ওই এলাকায় প্রতিদিন গড়ে একটি দুর্ঘটনা ঘটছে। ফুলতলা-১ জাহাজের ১২ নাবিক এমভি আল মুত্তাকিন নামের একটি লাইটারেজ জাহাজে উঠতে সক্ষম হয়েছেন।



সাতদিনের সেরা