kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৮। ৫ আগস্ট ২০২১। ২৫ জিলহজ ১৪৪২

দোকানের শাটার বন্ধ করে বেচা-কেনা, এরপর...

জগন্নাথপুর (সুনামদঞ্জ) প্রতিনিধি   

৫ জুলাই, ২০২১ ১৯:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দোকানের শাটার বন্ধ করে বেচা-কেনা, এরপর...

শাটার বন্ধ করে ভেতরে চলছিল বেচা-কেনা। এমন খবরে উপস্থিত হলো ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে সেই ব্যবসায়ীকে গুনতে হলো জরিমানা। আজ সোমবার (৫ জুলাই) দুপুরে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরশহরের প্রধান ব্যবসাকেন্দ্র জগন্নাথপুর পুরোনাবাজারে এমন দৃশ্য দেখা গেছে।

জানা যায়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে এক সপ্তাহের 'কঠোর লকডাউন' চলছে। 'লকডাউন' বাস্তবায়নে জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে সোমবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর সিনিয়র ওয়ারেন্টে অফিসার শামছুজ্জামানের উপস্থিতিতে সেনা সদস্যদের সহযোগিতায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়।

এদিকে, ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে অনেকে দোকানপাট বন্ধ করে সটকে পড়েন। বাজারের লিলিমা গার্মেন্টের দোকানদার ভ্রাম্যমাণ আদালতের টের পেয়ে দোকানের শাটার বন্ধ করে ভেতরে পণ্য বিক্রি করছিলেন। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত উপস্থিত হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পদ্মাসন সিংহ ওই দোকানদারকে এক হাজার ৫ শ টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া অভিযানকালে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানায় আরো দুই ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতরণসহ জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের না হওয়ার জন্য প্রচারণা চালানো হয়েছে। পদ্মাসন সিংহ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে আমরা মাঠে কাজ করছি।



সাতদিনের সেরা