kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

নিষেধ অমান্য করে কিস্তি আদায়, মুচলেকায় মুক্তি এনজিওকর্মীর

বেনাপোল প্রতিনিধি   

৩০ জুন, ২০২১ ০১:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিষেধ অমান্য করে কিস্তি আদায়, মুচলেকায় মুক্তি এনজিওকর্মীর

যশোরের বেনাপোলে করোনাকালীন নিষেধ অমান্য করে জোরপূর্বক সমিতির কিস্তি আদায়ের অভিযোগে পরিতোষ মন্ডল নামে একজন এনজিও কর্মীকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। পরে কিস্তির টাকা আর আদায় করবে না মুচলেকায় মুক্তি পেয়েছে ওই কর্মী।

মঙ্গলবার বিকালে বেনাপোল পোর্ট থানার সাদিপুর গ্রাম থেকে পৌরসভার স্যানিটারি ইন্সপেক্টর রাশিদা আক্তার ও পৌর স্বাস্থ্য সহকারী হাফিজুর রহমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা তাকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন।

বেনাপোল পৌরসভার প্রধান সহকারী আব্দুল্লা আল মাসুম রনি জানান, করোনার ভয়াবহতার এসময় বিধি-নিষেধ মানতে মানুষ কাজ হারিয়ে এমনিতেই অসহায় হয়ে পড়েছে। এ অবস্থার মধ্যে জেলা প্রশাসক মহোদয় গ্রাহকদের কাছ থেকে এনজিওদের জোরপূর্বক কিস্তির অর্থ আদায়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। কিন্তু নিষেধ অমান্য করে বিভিন্ন এনজিও সংস্থার সদস্যরা বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে টাকা আদায়ে জোর করছিলেন। ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে এমন অভিযোগ পেয়ে বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটনের নির্দেশে টিএমএস নামে এক এনজিও সদস্যকে ঘটনাস্থল থেকে ধরে পুলিশে দেওয়া হয়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন খাঁন জানান, নির্দেশ অমান্য করে সমিতির কিস্তি আদায় করায় পৌর কর্তৃপক্ষ পরিতোষ মন্ডল নামে একজন এনজিও সদস্যকে ধরে পুলিশে দিয়েছিল। তবে বর্তমান পরিস্থিতির মধ্যে আর কখনো কিস্তি আদায়ে অসহায় মানুষকে চাপ প্রয়োগ করবে না শর্তে মুচলেকা নিয়ে সমিতির কর্তৃপক্ষের হাতে তাকে তুলে দেওয়া হয়েছে।



সাতদিনের সেরা