kalerkantho

শুক্রবার । ২২ শ্রাবণ ১৪২৮। ৬ আগস্ট ২০২১। ২৬ জিলহজ ১৪৪২

পিটিয়ে ইজিবাইক চালকের হাত ভাঙলেন চৌকিদার

বেনাপোল প্রতিনিধি   

২৫ জুন, ২০২১ ২৩:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পিটিয়ে ইজিবাইক চালকের হাত ভাঙলেন চৌকিদার

যশোরের বেনাপোলে এক ইজিবাইক চালক আনোয়ার হোসেনকে পিটিয়ে হাত ভেঙে দিয়েছে মুনছুর আলী নামে এক চৌকিদার। পোর্ট থানার বাহাদুরপুর বাজার এলাকায় শুক্রবার (২৫ জুন) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় লোকেরা আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা সেবা দেন। এ ঘটনায় ইজিবাইক চালক বেনাপোল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ইজিবাইক চালক আনোয়ার হোসেন বেনাপোল পোর্ট থানার বেনাপোল গ্রামের সাজ্জাত আলীর ছেলে।

আহত আনোয়ার হোসেন বলেন, আমি লক্ষনপুর থেকে খালি ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বাহাদুরপুর বাজারে এলে চৌকিদার মুনছুর তাকে ইজিবাইক নিয়ে ফেরত যেতে বলে। তখন সে তাকে বলে তার বাড়ি বেনাপোল। উল্টোদিকে কোথায় যাব। 

আমি এখন বাড়িতে যাব। কিন্তু চৌকিদার মুনছুর আলী লকডাউন চলাকালীন তাকে কোনো রকম বেনাপোল আসতে দিবে না বলে আটকিয়ে রাখে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেয়। পরে স্থানীয় জনগণ তাকে উদ্ধার করে বেনাপোলের দিঘীরপাড় রজনী ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা দেন।

ভুক্তভোগীর স্ত্রী হীরা বেগম বলেন, তার স্বামীকে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। এতে যেভাবে ব্যান্ডেজ করা হয়েছে তাতে কাজ হচ্ছে না। স্থানীয় ডাক্তাররা তাকে যশোর হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেছে।

তিনি বলেন, স্থানীয় বাহাদুরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের কাছে বিচার চাইলে তিনি বলেন, কিসের বিচার তোমাদের কোনো বিচার হবে না। তোমরা থানায় যাও। লকডাউনের সময় কেন বের হয়েছ বলে ধমক দেয়।

এদিকে স্থানীয় আরিফুল নামে এক যুবক বলেন, অন্যায় হলে ইজিবাইকের চাবি রেখে দিত। তাকে এভাবে মারা উচিৎ হয়নি।
 
বেনাপোল পোর্ট থানার দায়িত্বরত অফিসার এ এস আই মুরাদ হোসেন বলেন, আনোয়ার হোসেন বাহাদুরপুর ইউনিয়নের দায়িত্বরত চৌকিদার মুনছুর আলীর বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। বিষয়টি তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন ওসি মামুন খান।



সাতদিনের সেরা