kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

রংপুরে ১৫ দিন পর কবর থেকে কলেজছাত্রীর লাশ উত্তোলন

রংপুর অফিস   

২৩ জুন, ২০২১ ১৭:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রংপুরে ১৫ দিন পর কবর থেকে কলেজছাত্রীর লাশ উত্তোলন

রংপুরে কলেজছাত্রী ইশরাত জাহান মিমের লাশ দাফনের ১৫ দিন পর আদালতের নির্দেশে উত্তোলন করা হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মালিহা খানমের উপস্থিতিতে আজ বুধবার পুলিশ কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত মিম নগরীর কুকরুল দক্ষিণপাড়ার আব্দুল মালেকের মেয়ে ও রংপুর সিটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণির দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। মেট্রোপলিটন পরশুরাম থানার ওসি (তদন্ত) আবু মুসা সরকার লাশ উত্তোলনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও নিহত কলেজছাত্রীর স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, গত ৭ জুন কলেজছাত্রী ইশরাত জাহান মিমকে প্রতিবেশী বান্ধবী আইভি ডেকে নিয়ে যায়। এরপর তার কোনো সন্ধান মেলেনি। পরের দিন ৮ জুন বাড়ির অদূরে পরিত্যক্ত একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্ত না করেই দাফন করা হয়। 

স্বজনদের অভিযোগ, মিমকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় পশুরাম থানা পুলিশ কোনো মামলা নেয়নি বলে নিহত মিমের মা নার্গিস বেগম অভিযোগ করেন। পরে রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন নার্গিস বেগম। আদালত লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত করার আদেশ দেন। আদালতের আদেশে আজ নগরীর মুন্সিপাড়া কবরস্থান থেকে নিহত কলেজছাত্রীর লাশ উত্তোলন করা হয়। এদিকে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহত মিমের বান্ধবী আইভি, তার ভাই মুন্না ও তার বন্ধু আল আমিন টাইগারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা এসআই আলতাফ হোসেন বলেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরেই হত্যার কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। তবে স্বজনদের দাবি, মিমকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা