kalerkantho

সোমবার । ১১ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৬ জুলাই ২০২১। ১৫ জিলহজ ১৪৪২

মঠবাড়িয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর অফিস ভাঙচুর, প্রার্থীর দণ্ড

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

১৯ জুন, ২০২১ ১৬:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মঠবাড়িয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর অফিস ভাঙচুর, প্রার্থীর দণ্ড

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার মিরুখালী ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস প্রতীক) চেয়ারম্যান প্রার্থী ও মেম্বর প্রার্থীর (মোরগ প্রতীক) পাঁচটি নির্বাচনী কার্যালয়ে ভাঙচুর চালিয়েছে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থকরা। 

শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়ন বাজারে ও ঝাউতলা আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও মেম্বর প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করে প্রতিপক্ষরা।

এ সময় দুজন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ মাসুম বিল্লাহ মুন্না শরীফ (২৪) ও খোকন পঞ্চায়েত (২৯) নামে দুই যুবককে আটক করেছে। ভাঙচুরে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রতিদ্বন্দ্বী এক মেম্বর প্রার্থীকে অর্থদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এলাকায় র‌্যাব ও পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় ১০/১২টি মোটসাইকেল নিয়ে বাজারে প্রবেশ করে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবু হানিফ খানের আনারস প্রতীকের নির্বাচনী অফিসে ভাঙচুর করে। এ সময় ৫ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বর প্রার্থী বর্তমান মেম্বর মো. মোয়াজ্জেম হোসেনের মোরগ প্রতীকের অফিসও ভাঙচুর করা হয়। তাদের হামলায় কার্তিক (৭০) ও চুন্নু জমাদ্দার (৬৫) নামে দুজন আহত হয়।

এরপর ঝাউতলা বাজারের অফিসও হামলাকারীরা ভাঙচুর করে এলাকায় ভিতিকর অবস্থার সৃষ্টি করে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘনের দায়ে অভিযুক্ত এক মেম্বার প্রার্থীসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশ। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহিন ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে অভিযুক্ত মেম্বর প্রার্থী ইউসুফ ডিলারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেন।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি নুরুল ইসলাম বাদল জানান, পরিস্থিত এখন নিয়ন্ত্রণে আছে। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে।



সাতদিনের সেরা