kalerkantho

রবিবার । ১০ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৫ জুলাই ২০২১। ১৪ জিলহজ ১৪৪২

কারখানায় চা শ্রমিকের মৃত্যু, কর্মবিরতিতে শ্রমিকরা

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

১৬ জুন, ২০২১ ২০:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কারখানায় চা শ্রমিকের মৃত্যু, কর্মবিরতিতে শ্রমিকরা

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের কুরমা চা-বাগান কারখানায় কাজের সময় অসাবধানতাবশত বৈদ্যুতিক ফ্যানে মাথা লেগে গুরুতরভাবে আহত হয়ে সঞ্জিব গৌড় (৩৫) নামে এক চা-শ্রমিকের মৃত্যু হয়। তিনি বাঘাছড়া চা-বাগানের মৃত সুদান গৌড়ের ছেলে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার অভাবের অভিযোগ তুলে বাঘাছড়া চা-বাগানের শ্রমিকরা আজ বুধবার কাজে যোগ না দিয়ে সারা দিন কর্মবিরতি পালন করে।

কুরমা চা-বাগানের পঞ্চায়েত সভাপতি নারদ পাশি ও বাঘাছড়া চা-বাগানের সভাপতি রাখাল গোয়ালা জানান, আসলে কাজের জায়গায় যেভাবে নিরাপত্তা দরকার চা-কারখানায় সেভাবে নিরাপত্তা নেই। তাই মঙ্গলবারের দুর্ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বাঘাছড়া চা-বাগানের শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করেছে।

বাঘাছড়া চা-বাগানের সহকারী ব্যবস্থাপক ইউসুফ খান জানান, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চা-বাগান কারখানায় চা তৈরির কাজ করছিল সঞ্জিব গৌড়। কাজের ফাঁকে অসাবধানতাবশত বৈদ্যুতিক ফ্যানে মাথা লেগে আহত হয়। পরে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ইসলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান জানান, নিহতের পরিবারকে পরবর্তী সময়ে চা-বাগান কর্তৃপক্ষ সার্বিক সহায়তা করবে। আর কাজের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা আরো জোরদার করার আশ্বাস দেওয়ায় আন্দোলনরত চা শ্রমিকরা বুধবারের কাজ রবিবার করে দেবে বলে সম্মতি প্রকাশ করেছে।

কমলগঞ্জ থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান বলেন, ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে আলোচনায় সমস্যার আপাতত সমাধান হয়েছে। নিহত চা-শ্রমিকের লাশের ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার বিকেলে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা