kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

শরণখোলায় বাড়ছে জ্বর-সর্দি-কাশি, তবু করোনা পরীক্ষায় অনীহা

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

১৫ জুন, ২০২১ ২১:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শরণখোলায় বাড়ছে জ্বর-সর্দি-কাশি, তবু করোনা পরীক্ষায় অনীহা

বাগেরহাটের শরণখোলায় হাসপাতালে বেশিরভাগই জ্বরের রোগী আসছে। এদের নমুনা পরীক্ষা করা হলে অনেকের শরীরে করোনা পজিটিভ আসবে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) ১২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। সোমবার ১৭ জনের ৬ জন এবং রবিবারও ১৬ জনের মধ্যে ৬ জনের করোনা সনাক্ত হয়।

উপজেলার সর্বত্র জ্বর, সর্দি, কাশির প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। যথাযথ পরীক্ষা হলে এসব রোগীর বেশিরভাগের শরীরে করোনা ধরা পড়বে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরীসংখ্যানবিদ বলরাম কীর্তনিয়া জানান, ১ জুন থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত শরণখোলা হাসপাতালে ১৩১ জন জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪২ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। যা গড় হিসাবে সনাক্তের হার শতকরা ৩২ দশমিক ৪২ ভাগ। পরীক্ষা বেশি হলে ৫০ ভাগের ওপরে করোনা রোগী পাওয়া যাবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. এস এম ফয়সাল আহমেদ বলেন, হাসপাতালের আউড ডোরে প্রতিদিন যে পরিমাণ রোগী আসছে, তার মধ্যে বেশিরভাগই জ্বর, সর্দি-কাশি নিয়ে আসে। যার সংখ্যা প্রায় ৮০ শতাংশ। এদের নমুনা পরীক্ষা করা হলে অনেকেরই করোনা সনাক্ত হবে।

ডা. ফয়সাল আহমেদ বলেন, এসব রোগীদের করোনা পরীক্ষার কথা বলা হলে তারা গুরুত্ব দেন না। মানুষ এব্যাপারে অসচেতন। সঠিকভাবে পরীক্ষা করা হলে করোনার প্রকৃত চিত্র জানা যাবে। তাছাড়া হাসপাতালে নিয়মিত করোনা পরীক্ষার সংখ্যাও কম। খুব গুরুতর অসুস্থ না হলে নিজ ইচ্ছায় নমুনা পরীক্ষায় আসতে চায় না মানুষ। এজন্য এনজিওর মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা উচিৎ বলে আমি মনে করি।



সাতদিনের সেরা