kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

শ্মশান দখলের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৫ জুন, ২০২১ ১৯:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শ্মশান দখলের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

ঢাকার ধামরাইয়ে নীট এইড লিমিটেড নামে একটি কম্পানি হিন্দুদের শ্মশানে সাইনবোর্ড টানিয়ে দখল করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর প্রতিবাদের আজ মঙ্গলবার স্থানীয় সনাতনধর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করেছে। উপজেলার সূতিপাড়া ইউনিয়নের বেলীশ্বর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, বেলীশ্বর গ্রামে প্রায় ৩০০ হিন্দু পরিবারের বসবাস। সদস্য সংখ্যা প্রায় সহস্রাধিক। এ গ্রামের হিন্দুদের কেউ মারা গেলে তারা নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় মৃত দেহের সৎকার সম্পন্ন করে আসছিলেন। পরে বেলীশ্বর কালীমন্দির সংলগ্ন সর্বজনীন মহাশ্মশানের নামে বেলীশ্বর মৌজার আর এস ২৫৫ নম্বর দাগে ১৮ শতাংশ উৎসর্গ করে দেন বেলীশ্বর গ্রামের কালীপদ বসাক। এরপর থেকে সেখানে নিয়মিতভাবে সৎকার সম্পন্ন করে আসছেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা।

গত কয়েকদিন আগে আকস্মিকভাবে ওই শ্মশানে 'নীট এইড লিমিটেড’ নামের একটি কম্পানী বায়না সূত্রে মালিক লিখে একটি সাইনবোর্ড টানিয়ে দেন। এর প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার স্থানীয় সনাতনধর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করে।

এসময় বক্তব্য রাখেন, বেলীশ্বর সর্বজনীন মহাশ্মশান কমিটির সভাপতি গকুল চন্দ্র পাল, সাধারণ সম্পাদক খুশিমহন পাল, সহসভাপতি রমে পালসহ অনেকে।

তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমাদের সর্বজনীন মহাশ্মশান দখলের প্রক্রিয়া হিসেবে একটি সাইনবোর্ড টানিয়ে দিয়েছেন একটি চক্র। আমাদের জীবন থাকতে শ্মশানের জমি দখল করতে দেব না। আমরা প্রশাসনের কাছে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাই।

নীট এইড লিমিডেটের চেয়ারম্যান রাসেল হোসেন বলেন, আমি কোনো শ্মশানের জমি দখল করেনি। যার নামে রেকর্ডভূক্ত জমি তার ওয়ারিশানের কাছ থেকে লিখে নিয়েছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আমান উল্লাহ জানান, প্রায় ৪০ বছর ধরে বেলীশ্বর গ্রামের হিন্দুরা শ্মশান হিসেবে এ জমি ব্যবহার করে আসছেন। শ্মশান কেউ দখল করতে আসলে সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে।

ধামরাই থানার ওসি আতিকুর রহমান বলেন, শ্মশানের জমি দখলের বিষয়ে একটা সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে বলে শুনেছি। তবে কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।    



সাতদিনের সেরা