kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩০ জুলাই ২০২১। ১৯ জিলহজ ১৪৪২

বকেয়া বেতনের দাবিতে সেতাবগঞ্জ চিনিকল শ্রমিকদের ঘেরাও কর্মসূচি

বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

১৪ জুন, ২০২১ ১৯:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বকেয়া বেতনের দাবিতে সেতাবগঞ্জ চিনিকল শ্রমিকদের ঘেরাও কর্মসূচি

দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ চিনিকলের শ্রমিক-কর্মচারীরা বকেয়া বেতনের দাবিতে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) অফিস ঘেরাও করেছেন। আজ সোমাবর সকাল ১০টায় ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেন তারা।

সেতাবগঞ্জ চিনিকল সূত্রে জানা যায়, গত ৬ মাসে শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন ৮ কোটি ১০ লাখ ৩৫ হাজার, মজুরী কমিশন বকেয়া বিল ১৫ লাখ ২০ হাজার, পিএফ বাবদ দেনা ৯ কোটি ৯৮ লাখ ৮০ হাজার, গ্রাচ্যুইটি বিল ১১ কোটি ৫৪ লাখ ৫৭ হাজার, ভ্যাট ও আয়কর ৬৫ লাখ ৭৭ হাজার, জামানত বাবদ ১ কোটি ৫৪ লাখ, সরবরাহকারী বিল বকেয়া ৫ কোটি ৩৩ লাখ ৮১ হাজার টাকাসহ অন্যান্য দেনা সর্বমোট ৫৫ কোটি ৩৫ লাখ টাকার মতো বকেয়া রয়েছে।

শ্রমিকরা জানান, চিনিকলের আখ মাড়াই বন্ধ হয়েছে। কিন্তু আমাদের চাকরি থাকবে কি না, বেতন ভাতা পাবে কি না, বিষয়টি কর্তৃপক্ষ এখনো নিশ্চিত করছে না।

সেতাবগঞ্জ চিনিকলের ইক্ষু উন্নয়ন সহকারী কর্মকর্তা ( সিডিএ) মো. তোফাজ্জাল হোসেন তোফা জানান, ৬ মাস ধরে বেতন ভাতা নেই। কি যে দুঃসহ জীবন যাপন করছি তা বুঝাতে পারব না। শুধু আমি নই, সকল শ্রমিক কর্মচারীই তাদের পরিবার নিয়ে অসহায় জীবন-যাপন করছে।

সেতাবগঞ্জ চিনিকল শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রশান্ত কুমার চৌহান বলেন, শ্রমিক কর্মচারীদের ৬ মাসের বকেয়া বেতন ভাতাসহ অন্যান্য বকেয়া ভাতা পরিশোধের জন্য ব্যবস্থাপনা পরিচালককে সাতদিনের আলটিমেটাম দেওয়া হয়েছে।

চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আহসান হাবিব জানান, তার চিনিকলে সব মিলিয়ে সর্বমোট দেনার পরিমাণ ৫৫ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। সদর দপ্তরে টাকা বরাদ্দের জন্য আবেদন করা হয়েছে। সদর দপ্তর থেকে টাকা এলে সকল বকেয়া পরিশোধ করা হবে। 



সাতদিনের সেরা