kalerkantho

বুধবার । ২০ শ্রাবণ ১৪২৮। ৪ আগস্ট ২০২১। ২৪ জিলহজ ১৪৪২

কুড়িগ্রামে হিমাগারে সংরক্ষণ ভাড়া বৃদ্ধি, সড়ক অবরোধ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি   

১২ জুন, ২০২১ ১৯:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুড়িগ্রামে হিমাগারে সংরক্ষণ ভাড়া বৃদ্ধি, সড়ক অবরোধ

কুড়িগ্রামে চলতি আলুর মৌসুমে হিমাগারে সংরক্ষিত আলুর সংরক্ষণ ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে আলু চাষি ও ব্যবসায়ীরা।

আজ শনিবার সকালে এই দাবিতে কাঁঠালবাড়ী বাজার এলাকায় কুড়িগ্রাম-রংপুর সড়ক একঘণ্টা অবরোধ করেন আলু চাষিরা। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত অবরোধ কর্মসূচি চলার সময় সব ধরণের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এ সময় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুল হক ব্যাপারী, আলু চাষি আইয়ুব আলী, মোস্তফা কামাল, আকবর আলী ও দুলাল ব্যাপারী।

ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে আলু চাষি ও ব্যবসায়ীরা বর্তমানে হিমাগার থেকে আলু উত্তোলন বন্ধ রেখেছেন। দাবি আদায় না হলে আরো বৃহত্তর কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চারটি হিমাগার রয়েছে। এগুলো হচ্ছে, এ হক হিমাগার লি., সেকেন্দার কোল্ড স্টোরেজ, বাবর কোল্ড স্টোরেজ লি. ও মোস্তফা কোল্ড স্টোরেজ লি.। চারটি হিমাগারের মালিকরা যৌথ সিদ্ধান্ত নিয়ে এ মৌসুমে ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু ব্যবসায়ী ও কৃষকরা এই ভাড়া বৃদ্ধিকে অযৌক্তিক দাবি করে আলু উত্তোলন বন্ধ রেখেছেন।

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার শিবরাম গ্রামের আলু চাষি আইয়ুব আলী অভিযোগ করেছেন, গত বছর ৫০ কেজি ওজনের প্রতিবস্তা আলুর সংরক্ষণ ভাড়া ছিল ২২০ টাকা। অথচ এ বছর কোনো কারণ ছাড়াই কুড়িগ্রামের চারটি হিমাগার মালিক প্রতিবস্তায় ১১০ টাকা হারে ভাড়া বৃদ্ধি করেছেন।

আলু চাষি আকবর আলী জানান, কী কারণে মালিকরা ভাড়া বাড়িয়েছেন তার কোনো সদুত্তর মিলছে না।

আলু ব্যবসায়ী মোস্তফা কামাল জানান, করোনার কারণে আলু বিদেশে রপ্তানি বন্ধ থাকায় এমনিতেই আলুর বাজার কম। চাহিদাও নেই। তার ওপর এই অযৌক্তিক ভাড়া বৃদ্ধির কারণে কৃষক ও ব্যবসায়ীরা চরম লোকসানে পড়ার আশঙ্কা করছেন। তিনি অভিযোগ করেন প্রতিটি হিমাগার অতিরিক্ত প্রায় দেড় কোটি টাকা আয় করার উদ্দেশ্যে এই ভাড়া বৃদ্ধি করেছে।

কুড়িগ্রাম কোল্ড স্টোরেজ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা জানান, বিদ্যুতসহ নানা খাতে খরচ বেড়ে যাওয়ায় ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। 



সাতদিনের সেরা