kalerkantho

বুধবার । ২০ শ্রাবণ ১৪২৮। ৪ আগস্ট ২০২১। ২৪ জিলহজ ১৪৪২

নেশায় বাধা দেওয়ায় কুপিয়ে হত্যা, গণপিটুনিতে নেশাগ্রস্তের মৃত্যু

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

১২ জুন, ২০২১ ১৬:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নেশায় বাধা দেওয়ায় কুপিয়ে হত্যা, গণপিটুনিতে নেশাগ্রস্তের মৃত্যু

মেহেরপুরের মুজিবনগরে নেশা করতে নিষেধ করার জের ধরে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে কুপিয়ে এবং নেশাগ্রস্ত অভিযুক্তকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার উপজেলার যতারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন যতারপুর গ্রামের সবজী ব্যবসায়ী ও মুজিবনগর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ও আব্দুর রশিদের ছেলে সাইদুর রহমান (৩৫) ও একই গ্রামের আবুল হোসেন মন্ডলের ছেলে মাদকসেবী মনিরুল ইসলাম মনি (৩৮)।

স্থানীয়রা জানান, মনিরুল ইসলাম এলকার একজন চিহ্নিত মাদকসেবী। সে প্রকাশ্যে মাদক সেবনের পাশাপাশি নানা ধরনের অপরাধ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিল। মনিরুলের সঙ্গে এলাকার বিভিন্ন অপরাধীদের সঙ্গে সম্পৃক্ততা থাকায় তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে সাহস পেতো না। ঘটনার সময় মনিরুল গ্রামের মাঁচায় বসে প্রকাশ্যে নেশা করছিল। এ সময় সাইদুর রহমান তাকে নেশা করতে নিষেধ করে। এনিয়ে দুজনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে মনিরুলের হাতে থাকা ধারালো হাসুয়া দিয়ে সাইদুরের গলায় কোপ দেয় এবং উপর্যুপরি কোপাতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই সাইদুরের মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর স্থানীয়রা মনিরুলকে গণপিটুনি দিলে মনিরুল সেখানেই মারা যায়।

মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাসেম জানান, মনিরুল ইসলাম মনি একজন মাদকসেবী। সে রাস্তার পার্শে গাঁজা সেবন করছিল। গাঁজা সেবনে বাধা দেওয়ায় প্রকাশ্য সাইদুর রহমানকে ধারালো হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় স্থানীয়রা মাদকসেবী মনিরুল ইসলাম মনিকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করে।

তিনি আরো জানান, দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রস্তুতি চলছে।



সাতদিনের সেরা