kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

বরখাস্ত চেয়ারম্যানকে পুনর্বহালের দাবিতে ইউনিয়ন পরিষদে তালা

ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

৭ জুন, ২০২১ ১৫:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরখাস্ত চেয়ারম্যানকে পুনর্বহালের দাবিতে ইউনিয়ন পরিষদে তালা

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়নের বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যানেকে পুনর্বহালের দাবিতে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে তালা লাগিয়েছে চেয়ারম্যানের অনুসারীরা। রবিবার দিবাগত রাত ৮টায় প্রায় ৩০ থেকে ৩৫ জন নারী পুরুষ ইউনিয়ন পরিষদের প্রত্যেকটি কক্ষে তালা লাগিয়ে বারান্দায় অবস্থান নেন বলে জানিয়েছেন প‍্যানেল চেয়ারম‍্যান আনিছুর রহমান আনিছ।

এর আগে রবিবার বিকেলে ১৫০ থেকে ২০০ নারী পুরুষ ঝাড়ু ও লাঠি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বাসভবন ঘেরাও করে। পরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহাঙ্গীর আলম ও পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদেরকে সরিয়ে দেন। এরপর তারা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে তালা লাগিয়ে অবস্থান নেন। ফলে ইউনিয়ন পরিষদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকায় স্থানীয় জনসাধারণ ভোগান্তিতে পড়েছে।

গত ১৭ জানুয়ারি ভূরুঙ্গামারী সদর ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। পরবর্তীতে স্থায়ী বহিষ্কারের জন্য কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করে। সাময়িক বরখাস্তের আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে ওই চেয়ারম্যান হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দাখিল করলে গত ৪ মে হাইকোর্ট বরখাস্তের আদেশকে ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেন। এই স্থগিতাদেশের কারণে নিজেকে চেয়াম্যান দাবি করে ইউনিয়ন পরিষদ দখলের চেষ্টা চালান এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ওপর বিভিন্নভাবে চাপ সৃষ্টি করে আসছেন তিনি। এই বিষয়ে মাহমুদুর রহমানের সঙ্গে কথা বলা জন্য মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। 

প্যানেল চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান জানান, কয়েকজন ব্যক্তি ইউনিয়ন পরিষদের প্রতিটি কক্ষে তালা দিয়ে অবস্থান নেওয়ায় ইউনিয়ন পরিষদের স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তিনি জানান, গত ৩ জুন বরখাস্ত হওয়া চেয়াম্যানের নির্দেশে কিছু ব্যক্তি ইউনিয়ন পরিষদে উপস্থিত হয়ে উদ্যোক্তা ও সচিবকে রুম থেকে বের করে দিয়ে ব্যবহৃত ল্যাপটপ ও প্রিন্টার নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। থানায় মামলা দেবার জন্য গেলে রহস্যজনক কারণে এখনো মামলা নেওয়া হচ্ছে না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপক কুমার দেব শর্মা জানান, চেয়ারম্যানকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সাময়িক বরখাস্ত করেছে। তাকে পুর্নবহাল করবে ওই মন্ত্রণালয়। আমরা পুর্নবহালের কোনো চিঠি পাইনি।

ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, প্যানেল চেয়ারম্যান এখনো কোনো এজাহার দাখিল করেন নাই। এজাহার দাখিল করলে মামলা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা