kalerkantho

শনিবার । ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১২ জুন ২০২১। ৩০ শাওয়াল ১৪৪২

দামুড়হুদায় এলাকাভিত্তিক লকডাউন ঘোষণা

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি   

২ জুন, ২০২১ ২১:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দামুড়হুদায় এলাকাভিত্তিক লকডাউন ঘোষণা

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় ব্যাপকহারে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ দেখা দেওয়ায় এলাকাভিত্তিক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। আজ বুধবার সকাল থেকে উপজেলা প্রশাসন এ ঘোষণা দেয়। একমাসের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে চুলের ব্যবসাসহ প্রসেসিং কারখানা।

গত কয়েক দিন ধরে উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রন্তের সংখ্যা। অধিকাংশ মানুষের মধ্যে দেখা দিয়েছে উপসর্গ। এর মধ্যে কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের সীমান্ত লাগোয়া গ্রাম কুতুবপুর, মুন্সিপুর, ঠাকুরপুর, জগন্নাথপুর, হরিরামপুর শীবনগর গ্রামে আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। গতকাল মঙ্গলবার উপজেলায় রোগীর সংখ্যা ছিল ৫৫ জন এর মধ্যে ৪০ জনই কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের এ সকল গ্রামের। গত এক সপ্তাহে এই ইউনিয়নে এই সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে পাঁচজনের।

দিন দিন আক্রান্ত, উপসর্গ ও মৃত্যুর হার বেড়ে যাওয়ায় উপজেলা প্রশাসন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারের নির্দেশে বুধবার থেকে মুন্সিপুর, পীরপুরকুল্লা, শীবনগর এলাকায় এলাকায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুদীপ্ত কুমার সিংহ ও মডেল থানার ওসি আব্দুল খালেক উপস্থিত থেকে হরিরামপুর গ্রামে ক্যাম্প বসিয়ে করোনায় আক্রান্ত উপসর্গ থাকা ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করেন কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে পাঠায়।

এ সময় সীমান্ত লাগোয়া অতিরিক্ত আক্রান্ত মুন্সিপুর, পীরপুরকুল্লা, শীবনগর এলাকায় লকডাউন করে দেওয়া হয়। এ সময় কার্পাশডাঙ্গা এলাকায় চুল ব্যবসা ও প্রসেসিং কারখানাগুলো এক মাসের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। প্রত্যেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, মাস্ক ব্যবহার ও বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের না হওয়া নির্দেশ দেওয়া হয় এবং অবৈধ পথে ভারতে যাওয়া-আসা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানানো হয়।



সাতদিনের সেরা