kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এবার একযোগে ১৩ পুলিশ কর্মকর্তা বদলি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০২১ ১৯:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এবার একযোগে ১৩ পুলিশ কর্মকর্তা বদলি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশে কর্মরত ১৩ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি করা হয়েছে। বদলিকৃতরা সবাই উপপরিদর্শক (এসআই) পদ মর্যাদার। বাংলাদেশ পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শকের (ডিআইজি) কার্যালয় থেকে এক আদেশে তাদেরকে বদলি করা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বদলির ওই আদেশটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এসে পৌঁছায়। ওই আদেশে ১০ জন এসআইকে জনস্বার্থে ও বাকি তিনজন এসআইকে প্রশাসনিক কারণে বদলি করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার সহকারি পুলিশ সুপার, সদর থানার ওসি, সরাইল থানার ওসি, বিশ্বরোড খাঁটিহাতা হাইওয়ে পুলিশের ওসি, সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত), সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন), সদর থানার পরিদর্শকসহ (মিডিয়া) পুলিশের ২০ জন কর্মকর্তাকে বদলি করা হলো। হেফাজত ইসলামের তাণ্ডবের পর থেকে একের পর এক পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি করা হচ্ছে।

বদলির সর্বশেষ আদেশ হওয়া ১৩ জন উপপরিদর্শকের মধ্যে বিউটি রানী দাস, বজলুর রহমান খাঁন, মো. হুমায়ূন কবির, মো. আমির হামজা, এস. এম. আতিকুজ্জামান ও মো. তোফাজ্জল হোসেনকে রাঙামাটি জেলায়, তপু সাহা ও মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীনকে বান্দরবন জেলায়, মো. মতিউর রহমান ও মো. শাহলম খাঁনকে খাগড়াছড়ি জেলায় জনস্বার্থে বদলির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এ ছাড়া প্রশাসনিক কারণ দেখিয়ে এসআই মো. শফিকুল ইসলামকে লক্ষ্মীপুর, মো. মিজানুর রহমানকে চাঁদপুর ও মো. নূরুল আমিনকে নোয়াখালী জেলায় বদলি করা হয়েছে। তাদের সবাইকে আগামী ২৯ মে এর মধ্যে বদলিকৃত কর্মস্থলে যোগদানের জন্য ছাড়পত্র নিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় ৩০ মে থেকে তাঁরা স্ট্যান্ড রিলিজ বা তাৎক্ষণিক অবমুক্ত হিসেবে গণ্য হবেন বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) রইছ উদ্দিন বদলির এ বিষয়টি সাংবাদিকদেরকে নিশ্চিত করেছেন।  তিনি জানান, নিয়মিত বদলির অংশ হিসেবেই তাদেরকে বদলি করা হয়েছে। অনেকেরই জেলায় দুই বছর পূর্ণ হয়েছে। তাদের মধ্যে ১০জনকে জনস্বার্থে ও তিনজনকে প্রশাসনিক কারণে বদলি করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা