kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

প্রবাসীর সঙ্গে স্ত্রী 'উধাও', উদ্ধারের জন্য থানায় স্বামীর আবেদন

লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০২১ ১৬:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রবাসীর সঙ্গে স্ত্রী 'উধাও', উদ্ধারের জন্য থানায় স্বামীর আবেদন

পরকীয়ার টানে স্ত্রী প্রবাসীর সঙ্গে 'উধাও' হওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। উধাও গৃহবধূর স্বামী ওসমান গণি মানিক লাকসাম থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগপত্রে ওই গৃহবধূ নগদ ১০ লাখ টাকা এবং পাঁচ ভরি স্বর্ণ নিয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। পুলিশ তার স্ত্রীকে খুঁজতে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন ওসি।

এর আগেও ওই গৃহবধূ একবার উধাও হয়েছিলেন। সে সময় স্বামী ওসমান গনি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে পুলিশ মোবাইল নম্বর ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে তাকে উদ্ধার করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ওসমান গনি মানিক একজন মাইক্রোবাসচালক। ১৪ বছর আগে বিয়ে করেন আপন খালাতো বোন খাদিজা আক্তার সোমাকে। তাদের সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে। শ্বশুরবাড়ি বড়বাম গ্রামে তার স্ত্রীসহ ছোট ছেলেকে নিয়ে থাকতেন। গত ১৯ মে মানিক গাড়ি নিয়ে ভাড়া নিয়ে যান। পরে ডাক্তার দেখানোর নাম করে সোমা লাকসামে যান। দীর্ঘক্ষণ পর্যন্ত বাড়িতে না ফেরায় মানিকের শ্যালক ঘটনাটি তার বোনের জামাইকে জানান।

এলাকাবাসী জানায়, সোমার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী গাইনেরডহরা গ্রামের মো. হারুনুর রশিদের ছেলে প্রবাসী শরিফ মিয়ার মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয়। একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ বছরের শুরুর দিকের শরীফ দেশে ফেরেন। এর আগে, জানুয়ারি মাসে সোমা ও শরীফ পরিবারের অগোচরে ঘর ছেড়ে যায়। এঘটনায় লাকসাম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করলে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে।

লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মো. মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন বলেন, এঘটনায় সোমার স্বামী একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তাদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।



সাতদিনের সেরা