kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

হোটেলে বিক্রির জন্য ৩০০ মরা মুরগি ড্রেসিং!

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি   

২৩ মে, ২০২১ ১৫:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হোটেলে বিক্রির জন্য ৩০০ মরা মুরগি ড্রেসিং!

চরফ্যাশনে ৩০০ মরা ব্রয়লার মুরগি ড্রেসিং করার সময় মো. রাসেল নামে এক যুবককে আটক করেছেন পৌর শহর ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আকতারুল আলম সামুসহ স্থানীয়রা। রাসেলের বাড়ি উপজেলার আবু বকরপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে। তিনি ওই এলাকার একটি পোল্ট্রি ফার্মের কর্মচারী।

গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে চরফ্যাশন বাজারের মাংসপট্টির এবটি মুরগির দোকানে মরা মুরগি ড্রেসিং করার সময় তাকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত রাসেলের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। উদ্ধার করা মৃত মুরগি পুড়িয়ে মাটিতে পুঁতে রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপন বিশ্বাস। তিনি বলেন, শনিবার রাতে পোল্ট্রি ফার্ম থেকে পাঁচটি বস্তায় করে ৩০০ মরা ব্রয়লার মুরগি বাজারে নিয়ে আসা হয়। মুরগিগুলো সেখানকার মিরাজের দোকানে ড্রেসিং করার সময় স্থানীয়রা মরা মুরগির টের পেয়ে তাকে আটকে রেখে আমাদেরকে খবর দেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার আইনে পোল্ট্রি ফার্মের কর্মচারী রাসেলকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। তবে আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে দোকানের মালিক পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা যায়নি। মরা মুরগিগুলো চুক্তিকৃত চরফ্যাশন বাজারের একটি হোটেলে দেওয়ার কথা ছিল।



সাতদিনের সেরা