kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

বরগুনায় ব্যবসায়ীদের দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারি, আহত ১০

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি   

২২ মে, ২০২১ ২৩:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরগুনায় ব্যবসায়ীদের দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারি, আহত ১০

বরগুনার আমতলী উপজেলার চুনাখালী বাজারে পণ্যের দাম বেশি রাখাকে কেন্দ্র করে ব্যবসায়ীদের দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারিতে ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের আমতলী ও পটুয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, পাইকারী ব্যবসায়ী মো. জাকারিয়া আমতলী উপজেলার কুকুয়া গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সবুজের নিকট ৮৩ হাজার টাকা পায়। শনিবার (২২ মে) চুনাখালী সাপ্তাহিক বাজারের দিন সবুজের সেই টাকা পরিশোধ করার কথা। সকালে জাকারিয়া সবুজের কাছে টাকা চাইতে গেলে তিনি টাকা দিতে পারবেন না বলে জানান। এ নিয়ে জাকারিয়া ও সবুজের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও দু’জনের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। 

এক পর্যায়ে বাজারের অন্যান্য ব্যবসায়ীরা কেউ জাকারিয়ার পক্ষে কেউ আবার সবুজের পক্ষে অবস্থান নিয়ে মারামারিতে লিপ্ত হন। দীর্ঘ সময় চলে মারামারি। এতে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হন। গুরুতর আহতরা হলেন- সবুজ, সোবাহান, আরিফ, সোহেল, মোতালেব, ফারুক ও আজিজুল।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে আমতলী ও পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেছেন। 

আহত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সবুজ দাবি করেন, পাইকারী ব্যবসায়ী জাকারিয়া আমার কাছে বিভিন্ন পণ্যের দাম বেশি রাখছে। সে জন্য আমি তার বকেয়া টাকা আজ পরিশোধ করিনি। 

পাইকারী ব্যবসায়ী মো. জাকারিয়া বলেন, আমি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সবুজের কাছে বাকিতে পণ্য বিক্রির বকেয়া ৮৩ হাজার টাকা পাব। আজ সেই টাকা পরিশোধ করার কথা। কিন্তু সবুজ সেই বকেয়া টাকা পরিশোধ না করে আমার সঙ্গে অহেতুক তর্কের সৃষ্টি করে মারামারিতে লিপ্ত হয়।

চুনাখালী বাজার ইজারাদার পক্ষের লোক মো. সুলতান মাস্টার বলেন, পণ্যের দাম বেশি রাখাকে কেন্দ্র করে বাজারের দুই গ্রুপের ব্যবসায়ীদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে অনেকে আহত হয়েছে। আহতদের আমতলী ও পটুয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আমতলী থানার ওসি (তদন্ত) রনজিত কুমার সরকার বলেন, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 



সাতদিনের সেরা