kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

করোনাভাইরাসের প্রভাব

টেকনাফে দশদিনের কঠোর লকডাউন

টেকনাফ প্রতিনিধি   

২০ মে, ২০২১ ২৩:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টেকনাফে দশদিনের কঠোর লকডাউন

নতুন করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কক্সবাজারের টেকনাফে দশদিনের কঠোর লকডাউন ঘোষণা করছেন প্রশাসন। আজ শুক্রবার ২১ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত লকডাউন বহাল থাকবে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্তে এ লকডাউন বাস্তবায়ন করবেন উপজেলা প্রশাসন।

এ প্রসঙ্গে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ চৌধুরী কালের কণ্ঠকে বলেন, টেকনাফ একটি সীমান্ত শহর ও রোহিঙ্গা ক্যাম্প অধ্যূষিত এলাকা হওয়াতে এখানে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কাজের প্রয়োজনে প্রতিদিন অনেক মানুষের আগমন হচ্ছে। এছাড়া গেল কয়েকদিনে জেলায় করোনা টেস্টে টেকনাফে শনাক্তের হার বৃদ্ধি পেয়েছে।  তাই সব মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সীমান্ত শহর টেকনাফে দশদিনের কঠোর লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

পারভেজ চৌধুরী আরো বলেন, ঘোষিত  লকডাউনে কেউ টেকনাফ উপজেলার বাইরে যেতে পারবেন না এবং এ সময়ে বাহির থেকে কেউ টেকনাফে ঢুকতে পারবেন না। লকডাউন বাস্তবায়ন করতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার মাইকিং করে এ ব্যাপারে জনসাধারণকে অবহিত করা হয়েছে। 

এদিকে ঘোষিত দশদিনের লকডাউন নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। সচেতনমহলের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানালেও শ্রমজীবী মানুষ বলছে, এমন লকডাউন তাদের 'নুন আনতে পান্তা পুরাই' এমন পরিবারের জন্য দৈন্যতা ছাড়া কিছুনা।

‌টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাস্টার জাহেদ হোসেন বলেন, এ ধরনের কঠোর  লকডাউনের সিদ্ধান্ত টেকনাফের মানুষকে অনেকটা ঝুঁকিমুক্ত রাখবে। জেলা প্রশাসক ও উপজেলা প্রশাসন সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ধন্যবাদ।



সাতদিনের সেরা