kalerkantho

রবিবার । ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৩ জুন ২০২১। ১ জিলকদ ১৪৪২

বেতাগীতে নড়বড়ে সেতুতে বাড়ছে দুর্ঘটনার শঙ্কা

বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি   

২০ মে, ২০২১ ১৭:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেতাগীতে নড়বড়ে সেতুতে বাড়ছে দুর্ঘটনার শঙ্কা

বরগুনার বেতাগী উপজেলার সদর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুরা গ্রামের আকনবাড়ির লোহার সেতুটি নড়বড়ে হয়ে এখন বেহাল। যেকোনো সময় সেতু ধসে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ও যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে পড়ার আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।

জানা গেছে, বেতাগী সদর ইউনিয়নের ভোলানাথপুর বাজারসংলগ্ন লক্ষ্মীপুরা গ্রামের আকনবাড়ি লোহার সেতুটি ২০০৭-২০০৮ অর্থবছরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ ৯১ লাখ ৬৩ হাজার ৫৭৭ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করে। ২০১৮ সালে সেতুর মধ্যভাগের লোহার অ্যাঙ্গেল ও সিমেন্টের স্লাব ভেঙে যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে যায়।

এর দুই সপ্তাহ পরে উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে সেতুর মধ্যভাগে ভাঙা অংশে কাঠের পাটাতন দিয়ে মেরামত করা হয়। সেই থেকে আজ পর্যন্ত সেতুটি পুনর্নির্মাণ বা সংস্কার করা হয়নি। সেতুর মধ্যভাগের লোহার কাঠামোর মেইন পোস্ট হেলে গিয়ে টপ স্লাব দেবে গেছে। নড়বড়ে এ সেতু দিয়ে পারাপার নিয়ে বরগুনার বেতাগী এবং পাশের উপজেলা পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ এ দুই উপজেলার মানুষ হুমকিতে রয়েছে। সেতুর মধ্যভাগ কাঠের অংশ দিয়ে পণ্যবাহী কোনো যানবাহন চলাচল করলে দোলনার মতো দুলতে থাকে।

সংবাদকর্মী অলি আহমেদ জানান, সেতুটি পুনসংস্কার না করা গেলে পণ্যবাহী যান চলাচল করলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংঙ্কা রয়েছে।

এ সেতু দিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষ প্রয়োজনীয় কাজে সদর ইউনিয়ন পরিষদে আসেন। এছাড়া প্রতিদিন সহস্রাধিক মোটরবাইক, মাহিন্দ্রা, প্রাইভেট কার, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা, রিকশা, ট্রাক ও পণ্যবাহী ভারী যানবাহন চলাচল করে। এতে দিন দিন সেতুটি নড়বড়ে হয়ে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

এবিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী শিপলু কর্মকার বলেন, এর মধ্যে এ সেতুটি নকশা এবং কাজের শিডিউল সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ হলে কাজের প্রাক্কলন অনুযায়ী অচিরেই যথাযথভাবে নির্মাণ করা হবে।



সাতদিনের সেরা