kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

৫ ফ্লাইওভারে বদলে যাবে রাজশাহীর চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২০ মে, ২০২১ ১৬:১৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৫ ফ্লাইওভারে বদলে যাবে রাজশাহীর চিত্র

রাজশাহী মহানগরীতে আরো ৫টি ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হচ্ছে। এ ফ্লাইওভারগুলো নির্মাণ হলে বদলে যাবে রাজশাহীর চিত্র। গ্রিনসিটি-ক্লিনসিটি নগরীতে উন্নয়নের এক নতুন দিগন্ত রচিত হবে। ৫টি ফ্লাইওভারসহ আরো ১৯টি অবকাঠামো নির্মাণের জন্য সর্বমোট প্রায় ১১০০ কোটি টাকা ব্যয় হবে। এসব উন্নয়ন কাজের জন্য নকশা প্রণয়ন ও বিস্তারিত প্রকৌশল নকশা প্রণয়নে তিনটি পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সাথে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাসিক মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। মেয়র তার বক্তব্যে বলেন, করোনা মহামারি মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। রাজশাহীতেও উন্নয়ন কাজ চলছে। রাজশাহীর উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে আবারো আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। আশাকরি আগামীতে আরো ৩/৪ হাজার কোটি টাকার দুটি প্রকল্প অনুমোদন পাব।

'রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন' শীর্ষক প্রকল্পের অধীন ৩টি প্যাকেজে ৫টি ফ্লাইওভার ও ১৯টি অবকাঠামো নির্মিত হবে। চুক্তিতে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের পক্ষে স্বাক্ষর করেন প্রকল্প পরিচালক ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী নুর ইসলাম তুষার। পরামর্শক প্রতিষ্ঠানসমূহের পক্ষে যথাক্রমে সার্ম অ্যাসোসিয়েটের পরিচালক (অপারেশন) শেখ মাসুম মো. সালাহউদ্দিন, ডিপিএম এর পরিচালক লাইক মো. মুস্তাক, ভিস্তারা আর্কিটেক্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা খালিদ পলাশ।

ফ্লাইওভারগুলো মধ্যে মহানগরীর হড়গ্রাম নতুনপাড়া রেলওয়ে ক্রসিং, কোর্ট স্টেশন রেলওয়ে ক্রসিং, শহীদ এ এইচ এম কামারুজ্জামান চত্বর রেলওয়ে ক্রসিং, ভদ্রা রেলওয়ে ক্রসিং এবং বর্ণালী মোড় থেকে বন্ধ গেইট এবং নতুন বিলসিমলা রেলওয়ে ক্রসিং। ৫টি ফ্লাইওভার নির্মাণে প্রায় ৮০০ কোটি টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে।

এছাড়া নগরীর আরো ১৯টি উন্নয়ন প্রকল্পও বাস্তবায়ন করা হবে। ১৯টি বিভিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন কাজে সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৫৩ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এ বি এম শরীফ উদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র-১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, জেম কনস্ট্রাকশন লি. এর চেয়ারম্যান প্রকৌশলী ওয়াহিদ আজহার, প্রকল্প পরিচালক নূর ইসলাম তুষার, প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিস্ট প্রকৌশলী গোলাম মুর্শেদ।



সাতদিনের সেরা