kalerkantho

শনিবার । ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১২ জুন ২০২১। ৩০ শাওয়াল ১৪৪২

বস্তায় মাছি-গন্ধ, ভেতরে মুরসালিনের দেহ

রাজবাড়ী প্রতিনিধি    

১৯ মে, ২০২১ ১৮:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বস্তায় মাছি-গন্ধ, ভেতরে মুরসালিনের দেহ

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের সাজুরিয়া গ্রামের পাটক্ষেত থেকে মুরসালিন মন্ডল (৬) এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজের তিন দিন পর সারের বস্তায় পাওয়া যায় তার লাশ। মুরসালিন একই ইউনিয়নের সাজুরিয়া গ্রামের কৃষক নবাব মন্ডলের ছেলে।

শিশুটির স্বজনরা জানিয়েছেন, গত ১৬ মে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সাজুরিয়া গ্রামের জনৈক ইউনুস মোল্লার বাড়ির সামনের পাকা রাস্তার শিশু মুরসালিনকে রেখে তার বাবা মাঠে কাজ করতে যান। কাজ শেষ করে বাড়িতে ফিরে এসে তিনি ছেলেকে না পেয়ে নানা স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। এক পর্যায়ে এক শিশু তাদেরকে জানায়, অজ্ঞাত এক ব্যক্তি তার মোটরসাইকেলে তুলে মুরসালিনকে নিয়ে গেছে।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এক চাষির পাটক্ষেতে একটি সারের বস্তা দেখতে পায় স্থানীয়রা। ওই বস্তার সঙ্গে অধিক পরিমান মাছি এবং মরদেহ পঁচে যাওয়ার গন্ধে তাদের সন্দেহ হলে তারা পুলিশকে সংবাদ দেয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে সারের বস্তা খুলে মরদেহটি উদ্ধার করে দুপুরে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) শেখ শরিফ উজ্জামান, পাংশা থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেনসহ জেলা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) শেখ শরিফ উজ্জামান জানিয়েছেন, ইতোমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। কারা কি কারণে শিশু মুরসালিনকে হত্যা করেছে তা খুঁজে বের এবং হত্যাকারীদের শনাক্ত করণের কাজ শুরু করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা