kalerkantho

শুক্রবার । ৪ আষাঢ় ১৪২৮। ১৮ জুন ২০২১। ৬ জিলকদ ১৪৪২

কেশবপুরে ছাত্রলীগ নেতা হত্যা

আওয়ামী লীগ নেতার ফাঁসি দাবি

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

১৯ মে, ২০২১ ১৭:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আওয়ামী লীগ নেতার ফাঁসি দাবি

যশোরের কেশবপুরে ছাত্রলীগ নেতা সারাফাত হোসেন সোহান হত্যা মামলায় আসামিদের গ্রেপ্তারসহ ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সোহানের বন্ধু ফোরামের উদ্যোগে শহরের শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা দৌলত বিশ্বাস চত্বর থেকে কেশবপুর প্রেস ক্লাব পর্যন্ত ওই মানববন্ধনে কয়েক শ মানুষ অংশ নেয়।

গত ৭ মে সকালে পৌরসভার ৯ নম্বর বালিয়াডাঙ্গা ওয়ার্ডের সাইক্লোন শেল্টারে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় ৪৫০ টাকা করে সরকারি সহায়তা দেওয়াকে কেন্দ্র করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শেখ এবাদত সিদ্দিকী বিপুল গ্রুপের সমর্থকরা সারাফাত হোসেন সোহানের ওপর হামলা করে। হামলায় ছাত্রলীগ নেতা সোহান মারাত্মক আহত হলে তাকে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে ওই দিনই তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১২ মে (বুধবার) রাতে তিনি মারা যান। 

এ ঘটনায় সোহানের চাচা পৌর আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ বাদী হয়ে কেশবপুর থানায় সাতজনের নামে মামলা করেন। মামলার আসামিরা হলেন- পৌরসভার বালিয়াডাঙ্গা এলাকার মেহেদী হাসান (২৮), শেখ এবাদত সিদ্দিকী বিপুল (৪৬), সোহেল (২৮), রাজু হোসেন (২৩), আব্দুর রশিদ (৪৫), রহিম হোসেন রানা (২৪) ও আমির আলী (৪৫)। মামলায় আরো ৫-৬ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে। পুলিশ মামলার প্রধান আসামি মেহেদী হাসানসহ জারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোহানের বন্ধু ফোরামের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন, সোহানের বন্ধু মোহাম্মদ নাসিম, তাজিম, খান রকি, বাদল দাস, বালিয়াডাঙ্গা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, সোহানের বাবা আব্দুল হালিম, চাচা আবুল কালাম আজাদ, নাজমুল হোসেন, আব্দুল কুদ্দুস প্রমুখ। 

বক্তারা সারাফাত হোসেন সোহান হত্যা মামলার আসামি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ এবাদত সিদ্দিকী বিপুলকে গ্রেপ্তারসহ ফাঁসির দাবি জানান। এ সময় ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড হাতে শিশুরাও অংশ নেয়।

কেশবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বোরহান উদ্দিন বলেন, সোহান হত্যা মামলার প্রধান আসামি বালিয়াডাঙ্গা এলাকার দাউদ আলীর ছেলে মেহেদী হাসানসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিদেরও গ্রেপ্তার করতে অভিযান চলছে।



সাতদিনের সেরা