kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

শ্রমিক লীগ নেতার রগ কাটার ঘটনায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

আত্রাই-রানীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১৭ মে, ২০২১ ১৭:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শ্রমিক লীগ নেতার রগ কাটার ঘটনায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

নওগাঁর আত্রাই উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার সোয়েব (৪২) উপর অতর্কিত হামলার ঘটনায় ১২ জনকে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। সোমবার (১৭ মে) সকালে আহতের স্ত্রী সাবরিনা সুলতানা ঝর্ণা বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলার এক নম্বর আসামি আত্রাই উপজেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী ও আত্রাই উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এর আগে গতকাল রবিবার (১৬ মে) দুপুরে আত্রাই উপজেলা সদরের নিউ মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় সরদার সোয়েবের অফিসে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমের ছেলে মির্জা রাব্বীর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সোয়েবের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় গুরুতর জখম হয় ও হাত-পায়ের রগ কেটে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। তার শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হতে থাকলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সরদার সোয়েব প্রতিদিনের মতো রবিবার দুপুরে উপজেলা নিউ মার্কেটে ঠিকাদারি কাজে ব্যক্তিগত অফিসে যান। হঠাৎ মির্জা রাব্বী তার দলবল নিয়ে সরদার সোয়েবের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে চলে যান। এতে সোয়েবের শরীরের বেশ কিছু জায়গায় গুরুতর জখম ও হাত-পায়ের রগ কেটে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

আত্রাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, সরদার সোয়েবের সঙ্গে তাদের ব্যবসা নিয়ে আর্থিক লেনদেন ছিল। এর সূত্র ধরেই তার ওপর হামলা হয়েছে। আহতের স্ত্রী বাদী হয়ে মমতাজ বেগমের নির্দেশে হামলা হয়েছে মর্মে তাকেসহ ১২ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন। এ ঘটনায় মমতাজ বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এদিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই দুরুল হুদা জানান, সোমবার গ্রেপ্তারকৃত মমতাজ বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে নওগাঁ আদালতে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্তকরা হচ্ছে। বাকিদের আটকের চেষ্টা চলছে।



সাতদিনের সেরা