kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

মাদারগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু, আহত ৩

জামালপুর প্রতিনিধি   

১৭ মে, ২০২১ ১৬:৫৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মাদারগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু, আহত ৩

জামালপুরের মাদারগঞ্জের শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ী এলাকায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর ঘটনাস্থল। ডানের ছবিতে মৃতের স্বজনদের আহাজারি। ছবি : কালের কণ্ঠ

জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলায় ঘর নির্মাণ কাজ করার সময় পল্লীবিদ্যুতের ১১ হাজার ভোল্টেজের সচল তারের সাথে টিনের বেড়ার স্পর্শে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘর মালিকসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন আরো তিনজন।

আজ সোমবার সকালে মাদারগঞ্জের সিঁধুলী ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ী এলাকায় মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনা ঘটে।

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- সিঁধুলী ইউনিয়নের চর লোটাবর গ্রামের মৃত মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে প্রিন্টিং প্রেস ও ওষুধ ব্যবসায়ী রাজু আহমেদ (৩৫), হাটবাড়ি গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিন বেপারীর ছেলে শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ী বাজারের মাংস ব্যবসায়ী ইলিম উদ্দিন (৬৫) ও বীর লোটাবর গ্রামের বিন্দু মিয়ার  ছেলে বেকারিপণ্যের ব্যবসায়ী মিন্টু মিয়া (৩৫)। এ সময় আরো তিনজন সামান্য আহত হয়েছেন। তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

ঘটনাস্থল শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ী বাজারের ব্যবসায়ী ও মাদারগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-দপ্তর সম্পাদক জাকিউল হক বুলবুল কালের কণ্ঠকে জানান, ঘর মালিক রাজু আহমেদ কয়েকদিন আগে শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ী বাজারের পাশেই জমিসহ একটি গুদামঘর কিনেছেন। সোমবার সকাল ১০টার দিকে রাজু আহামেদ তার লোকজন নিয়ে সেখানে ঘর নির্মাণ কাজ করছিলেন। তারা কয়েকজনে মিলে একটি টিনের বেড়া সরাচ্ছিলেন। বেড়াটি অসাবধানতাবশত পল্লীবিদ্যুতের ১১ হাজার ভোল্টেজের সচল তারে স্পর্শ হয়। এতে সাথে সাথে বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘর মালিক রাজু আহামেদসহ তিনজন ঘটনাস্থলেই মারা যান এবং আরো তিনজন সামান্য আহত হন।

এ ঘটনায় মৃত ব্যক্তিদের পরিবারের স্বজনদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে পল্লীবিদ্যুতের ১১ হাজার ভোল্টেজের সচল তার নিচে ঝুলে ঝুঁকিপূর্ণ থাকলেও কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় আজকে এই মর্মান্তিক দুর্ঘনটনায় তিনজনের মৃত্যু হলো। খবর পেয়ে মাদারগঞ্জ থানা পুলিশ ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি মাদারগঞ্জ জোনাল কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) জসিম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

পল্লীবিদ্যুতের ডিজিএম কালের কণ্ঠকে বলেন, আমাদের ১১ হাজার ভোল্টেজের বিদ্যুৎ লাইন মাটি থেকে ১৫ ফুট উঁচু দিয়ে গেছে। ঘটনাস্থলে মাটি ভরাটের কারণে বর্তমানে বিদ্যুৎলাইন নিচু হয়ে গেছে। টিনের বেড়া সরানোর সময় তারা সতর্কতা অবলম্বন করলে হয়তো এ দুর্ঘটনা এড়ানো যেতো। দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা বিদ্যুৎ লাইন আরো উঁচু করার কাজ শুরু করবো।

মাদারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহবুবুল আলম কালের কণ্ঠকে বলেন, শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ীতে পল্লীবিদ্যুতের ১১ হাজার ভোল্টেজের সচল তারে স্পর্শ লেগে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি। মৃত ব্যক্তিদের স্বজনরা তাদের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে গেছে। কেউ অভিযোগ করলে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  



সাতদিনের সেরা