kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

১৫ ঘণ্টার অভিযানে বিরল প্রজাতির বনরুই উদ্ধার

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৫ মে, ২০২১ ২২:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১৫ ঘণ্টার অভিযানে বিরল প্রজাতির বনরুই উদ্ধার

লাউয়াছড়া বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ ও র‍্যাবের ১৫ ঘণ্টার অভিযানে একটি বিরল প্রজাতির বনরুই উদ্ধার করা হয়েছে। বনরুইটি বতর্মানে কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া রেসকিউ সেন্টারে অবমুক্ত করার অপেক্ষায় রয়েছে। ঘটনাটি গত বুধবার কুলাউড়া উপজেলার রবির বাজারের রাঙ্গিছড়া চা বাগানের জাপানপুঞ্জি এলাকার।

বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, খাসিয়া মেঘা (ছদ্মনাম) নামের এক ব্যক্তি মোবাইল ফোনে ইনফরমারকে জানায় তার কাছে একটি বনরুই রয়েছে এবং সেটি সে বিক্রি করবে। পরে ইনফরমার বিষয়টি বনবিভাগকে জানায়। সংবাদ পাওয়ার পর বনবিভাগ দ্রুত রেসকিউ টিম নিয়ে ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে মাঠে নেমে পড়ে। ওই টিমকে সহযোগিতা করে স্বেচ্ছাসেবী টিম (সিউ)। তারা প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলার পাত্রখোলা এবং কুরমা পুঞ্জিতে খবর নিয়ে ওই ব্যক্তিটির লোকেশন ট্রেস করে জানা যায় তার নাম মেঘা নয় জুয়েল। সে কুলাউড়া উপজেলার রবির বাজারের রাঙ্গিছড়া চা বাগানের জাপানপুঞ্জির বাসিন্দা।

বনরুইটি উদ্ধারের জন্য টিমের সদস্যরা অভিযানের সময় জানতে পারেন মেঘা নামের কেউ নেই এলাকায়। পরে ওই ব্যক্তিটির লোকেশন ট্রেস করে রেসকিউ টিম বিকাল সাড়ে ৫টায় ঘটনাস্থলে পৌঁছে বনরুইটিকে উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত বনরুইটিকে বর্তমানে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের রেসকিউ সেন্টারে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। যে কোনো দিন অবমুক্ত করা হবে।

কমলগঞ্জ লাউয়াছড়া রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. সহিদুল ইসলাম বলেন, বিরল প্রজাতির বনরুইটিকে লাউয়াছড়া উদ্যানের জানকিছড়া রেসকিউ সেন্টারে পর্যবেক্ষণের জন্য রাখা হয়েছে। পরে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে অবমুক্ত করা হবে।

বন্যপ্রাণি ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের মৌলভীবাজারস্থ বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, সংবাদ পাওয়ার পর সার্বক্ষণিক তদারকির মাধ্যমে এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় আমাদের রেসকিউ টিম দীর্ঘ সময় অভিযানের পর বনরুইটি উদ্ধার করে।



সাতদিনের সেরা