kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

ঝগড়া থামাতে গিয়ে রডের আঘাতে গেল প্রাণ

দিনাজপুর প্রতিনিধি    

১৫ মে, ২০২১ ১৫:৫৫ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ঝগড়া থামাতে গিয়ে রডের আঘাতে গেল প্রাণ

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ঝগড়া থামাতে গিয়ে ছোট ভায়রাভাইয়ের রডের আঘাতে বড় ভায়রাভাই নিহত হয়েছেন। পুলিশ এ ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে। আজ শনিবার (১৫ মে ) সকালে চিরিরবন্দর উপজেলার ৬ নম্বর অমরপুর ইউনিয়নের কুতুবডাঙ্গা দুর্ঘাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তাজমুল ইসলাম (৪০) পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি ছিলেন। তিনি বন্দর উপজেলার ৬ নম্বর অমরপুর ইউনিয়নের কুতুবডাঙ্গা দুর্ঘাপুর গ্রামে অফুর উদ্দিনের ছেলে।

জানা গেছে, কুতুবডাঙ্গা দুর্ঘাপুর গ্রামে চাচাতো ভায়রাভাইয়ের স্ত্রী ও ভাগ্নির সঙ্গে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে মইনুলের পরিবার ও তাজমুলের পরিবারের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদের সৃষ্টি হয়। তাদের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি শুরু হলে রাজমিস্ত্রি তাজমুল ইসলাম ঝগড়া থামাতে যান। এ সময় ভায়রাভাই মইনুলের হাতের রডের আঘাত তাজমুল ইসলামের মাথায় লাগলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। 

চিরিরবন্দর থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার জানান, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে খুনের ঘটনা ঘটেছে। মইনুলের পরিবারসহ তাদের ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।



সাতদিনের সেরা