kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

স্ত্রীকে মোটরসাইকেলে তুলে নিলেন রাকিবুল, নদীর কচুরিপানায় মিলল লাশ

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পাবনা   

১৫ মে, ২০২১ ১৫:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্ত্রীকে মোটরসাইকেলে তুলে নিলেন রাকিবুল, নদীর কচুরিপানায় মিলল লাশ

পাবনার সাঁথিয়ায় কানিজ ফাতিমা (২০) নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী রাকিবুল ইসলামের (২৪) বিরুদ্ধে। নিখোঁজের দু'দিন পর গতকাল (১৫ মে) শনিবার সকালে সাঁথিয়া উপজেলার পার-করমজা গ্রামের ইছামতি নদীর কচুরিপানার মধ্যে থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে বেড়া থানা পুলিশ। 

থানা ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, দু'বছর আগে সাঁথিয়া উপজেলার ফেঁচুয়ান গ্রামের চাদু শেখের ছেলে রাকিবুলের সাথে বিয়ে হয় বেড়া পৌর এলাকার শম্ভুপুর মহল্লার আব্দুল কাদের ড্রাইভারের মেয়ে কানিজ ফাতেমার। বিয়ের পর থেকেই দুজনের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। এ নিয়ে অনেক দেনদরবার হয়েছে। এরই জের ধরে গত দু'দিন আগে বৃহস্পতিবার রাত ২টার সময় স্বামী রাকিবুল কানিজ ফাতেমাকে ফোন দিয়ে বাড়ির বাইরে যেতে বলেন। বাড়ির বাইরে এলে তাকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যান স্বামী। পরে তিনি কানিজকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ইছামতি নদীতে কচুরিপানার মধ্যে ফেলে রেখে যান।
 
এ দিকে কানিজ ফাতেমার পরিবারের লোকজন তাকে বাড়িতে না দেখে খোঁজাখুঁজি করেন। কানিজকে না পেয়ে ঈদের দিন সকালে বেড়া থানায় গিয়ে অপহরণের অভিযোগ দেন। পরে বেড়া থানা পুলিশ রাকিবুলকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি হত্যার কথা স্বীকার করেন। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ি আজ শনিবার সকাল ১০টার সময় পার-করমজা ইছামতি নদীর তীরে কচুরিপানার মধ্যে থেকে লাশ উদ্ধার করে  বেড়া থানা পুলিশ।

বেড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরবিন্দ সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা আব্দুল কাদের বাদী হয়ে বেড়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।



সাতদিনের সেরা