kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

পুলিশ পরিচয়ে মহাসড়কে টাকা আদায়, ধরা খেল যুবক

মিজাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

১২ মে, ২০২১ ১৯:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশ পরিচয়ে মহাসড়কে টাকা আদায়, ধরা খেল যুবক

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থানা পুলিশ শরিফুল ইসলাম (২২) নামে এক ভুয়া কনস্টেবলকে গ্রেপ্তার করেছে। বুধবার বেলা সাড়ে বারোটার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার ধল্যা নামক স্থানে মোটরসাইকেল তল্লাশির সময় তাকে গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশ।

এ সময় তার কাছ থেকে অ্যাপাসি একটি মোটরসাইকেল, দুটি মোবাইল ফোন ও আরিফ রহমান নামে অন্য এক ব্যক্তির পুলিশ পরিচয়পত্র জব্দ করেন। শরিফুল ইসলাম দিনাজপুরের বিরল উপজেলার খানসামা বটতলা গ্রামের শাহীনুর ইসলামের ছেলে।

পুলিশ সূত্র জানান, মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হাবিবুর রহমান উকিল মহাসড়কে টহল দিচ্ছিলেন। এ সময় তিনি বেলা সাড়ে বারোটার দিকে মহাসড়কের ধল্যা নামক স্থানে পুলিশের পোষাক পরিহিত এক কনসেটবলকে মোটরসাইকেল তল্লাশি করতে দেখেন। বিষয়টি তার সন্দেহ হলে পোষাক পরিহিত ওই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। পোষাক পরিহিত ব্যক্তি নিজেকে পুলিশের কনস্টেবল পরিচয় দেন। কর্মস্থল গাজীপুর জেলা পুলিশ লাইনে সাময়িক বরখাস্ত রয়েছেন বলেও জানান।

তিনি ২০১৮ সালে পুলিশে যোগদান করেছেন এবং তার কনস্টেবল নম্বর ক-১৪৮২ জানান। তাকে নারী সংক্রান্ত বিষয়ে ২০১৯ সালের ১৬ জুন বরখাস্ত করা হয়েছে বলেও তিনি হাবিবুর রহমানকে জানান। কিন্তু তিনি বিপি নম্বর জানাতে ব্যর্থ হয়। তার দেওয়া তথ্য পুলিশের সন্দেহ হলে তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে।

মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপুর সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, পুলিশের পোষাক পরিহিত শরিফুলের দেওয়া তথ্য গাজীপুর জেলা পুলিশে যাচাই-বাছাই শেষে প্রমাণিত হয়েছে তিনি পুলিশের সদস্য নন। তিনি পুলিশের পোষাক পরে নিজেকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে মহাসড়কে টাকা আদায় করছিলেন। তার নামে মির্জাপুর থানায় প্রতারণা ধারায় মামলা হয়েছে বলে তিনি জানান।



সাতদিনের সেরা