kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

'নয়া দামান গানের ঝড় ফেরিতেও'

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি   

১২ মে, ২০২১ ০০:০৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'নয়া দামান গানের ঝড় ফেরিতেও'

এ সময়ের ব্যাপক জনপ্রিয় 'আইলারে নয়া দামান আসমানেরও তারা' গানের ঝড় বইছে ফেরিতেও। ফেরিতে যাত্রীদের ঢলের মাঝে বিশৃঙ্খলা থামাতে ফেরির মাস্টার এ কৌশল অবলম্বন করছেন বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার (১১ মে) শিমুলিয়া থেকে যাত্রী বোঝাই করে বাংলাবাজার ঘাটে আসা রো রো ফেরি ভাষা সৈনিক ডা. গোলাম মাওলা ফেরিতে এই চিত্র দেখা যায়। 

সরেজমিনে একাধিক সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল থেকেই বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌ রুটে দক্ষিণাঞ্চলগামী যাত্রীদের ঢল শুরু হয়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রী ঢল আরো বৃদ্ধি পায়। শিমুলিয়া থেকে ছেড়ে আসা প্রতিটি ফেরিতেই যাত্রী ও যানবাহনে ছিল পরিপূর্ণ। তবে সব ফেরি চালু থাকায় ফেরিতে যাত্রীদের গাদাগাদি কম ছিল। 

এদিন শিমুলিয়া থেকে যাত্রী বোঝাই করে রো রো ফেরি ভাষা সৈনিক ডা. গোলাম মাওলা বাংলাবাজার ঘাটে ভেরার সময় দেখা যায় ফেরির মাইকে 'আইলারে নয়া দামান আসমানেরও তারা' গানটি বাজছে। ভরপুর ফেরিটির যাত্রীদের কলহ ও বিশৃঙ্খলা থামাতে ফেরিটির মাস্টার ইনচার্জ এ গান ছাড়েন বলে জানা যায়। অসহনীয় গরমের মাঝে গাদাগাদি করা যাত্রীদের বিষয়টি বেশ উপভোগ করতে দেখা যায়। এ গানটি ছাড়াও আরো বেশ কিছু জনপ্রিয় গান ফেরিটিতে বাজানো হয় বলে জানা গেছে। যাত্রীর চাপ সামাল দিতে এদিন বাংলাবাজার ঘাট থেকে খালি ফেরি শিমুলিয়া ঘাটে পাঠানো হয়।

এদিকে ঢাকা থেকে বিভিন্ন উপায়ে অতিরিক্ত ভাড়া ব্যয় করে বাংলাবাজার ঘাটে এসে দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীরা পড়েন আরো ভোগান্তিতে। পরিবহন বন্ধ থাকায় এ কদিন যাত্রীরা মোটরসাইকেল, থ্রি হুইলার, ইজিবাইকসহ বিভিন্ন হালকা যানবাহনে কয়েকগুণ ভাড়া গুনে দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোতে গেলেও এদিন যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাস চলতে দেখা যায়। বাস ও মাইক্রোবাসগুলোতে কয়েকগুণ ভাড়া গুনে যাত্রী গাদাগাদি করে ভরতে দেখা গেছে। ঘাট এলাকাজুড়ে পুলিশ অবস্থান করছিল। বাড়তি ভাড়া, অতিরিক্ত যাত্রী বা অবৈধ যানবাহনের চলাচল কোনো কিছুতেই পুলিশের হস্তক্ষেপ চোখে পড়েনি। তবে বেদেদের হয়রানির ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে পুলিশ ও প্রশাসন তৎপর হয়। 

খুলনাগামী আবির হোসেন বলেন, আসার পথে পথে অনেক ভোগান্তি হয়েছে। শিমুলিয়া ঘাটে অনেক সময় অপেক্ষা করার পর রো রো ফেরি ভাষা সৈনিক ডা. গোলাম মাওলায় ওঠার পর অনেক গাদাগাদি করে দাঁড়িয়েছিলাম। কিন্তু ফেরিটি ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অনেক সুন্দর সুন্দর গান বাজতে শুরু করে।

রো রো ফেরি ভাষা সৈনিক ডা. গোলাম মাওলার মাস্টার ইনচার্জ আ. করিম মিয়া বলেন, ফেরিতে হাজার হাজার যাত্রী পার হচ্ছে। তাদের বিশৃঙ্খলা থামাতে ফেরির মাইকে 'আইলারে নয়া দামান আসমানেরও তারা'সহ বিভিন্ন জনপ্রিয় গান বাজাই। এতে ভালো কাজ হয়। 

বিআইডব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ি ঘাট ম্যানেজার মো. সালাউদ্দিন বলেন, ভাষা সৈনিক ডা. গোলাম মাওলার মাস্টার খুব মজার একজন মানুষ। 



সাতদিনের সেরা