kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

নলছিটিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সুজন সভাপতি গ্রেপ্তার

ঝালকাঠি প্রতিনিধি   

১১ মে, ২০২১ ২০:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নলছিটিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সুজন সভাপতি গ্রেপ্তার

ঝালকাঠির নলছিটিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সুজন সুশাসনের জন্য নাগরিকর উপজেলা শাখার সভাপতি সাংবাদিক খলিলুর রহমান মৃধাকে (৪৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে পৌরসভার ৭নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম টিটুর দায়ের করা মামলায় তাকে বাড়ি থেকে রাতেই গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, নলছিটি পৌরসভার টেন্ডার সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে মেয়র আবদুল ওয়াহেদ খান ও ৭নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম টিটুকে নিয়ে সাংবাদিক খলিলুর রহমান মৃধা আপত্তিকর মন্তব্য করে সোমবার সকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডি থেকে স্ট্যাটাস দেন। এ ঘটনায় সোমবার রাতেই নলছিটি থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম টিটু। পুলিশ রাতেই পৌর এলাকার গৌরিপাশা গ্রামের বাড়ি থেকে সাংবাদিক খলিলুর রহমান মৃধাকে গ্রেপ্তার করে।

খলিলুর রহমান মৃধা গৌরিপাশা গ্রামের মৃত মোশারেফ মৃধার ছেলে। তিনি সুজন সুশাসনের জন্য নাগরিক’র উপজেলা শাখার সভপতি ও দৈনিক জনতার উপজেলা প্রতিনিধি। তিনি গত ৩০ ডিসেম্বর পৌরসভা নির্বাচনে ৭নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে যান।

মামলায় বাদী শহিদুল ইসলাম টিটু উল্লেখ করেন, ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় মেয়র ও কাউন্সিলরদের সম্মানহানী হয়েছে। আসামি বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করে যাচ্ছে। তিনি পৌরসভার ভালো চান না। এই পেস্ট হাজার হাজার মানুষ দেখেছে। ফলে জনমনেও বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। তাই স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের পরামর্শে তিনি মামলা দায়ের করেন।

খলিলুর রহমানের পরিবার জানায়, নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা নিয়ে শহিদুল ইসলাম টিটুর সঙ্গে সাংবাদিক খলিলুর রহমান মৃধার বিরোধ চলছিল। এরই জেরে তার বিরুদ্ধে ‘ষড়যন্ত্রমূলক’ মামলা করা হয়েছে।

নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহমেদ বলেন, ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। রাতেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ মামলায় তিনি একাই আসামি।

এদিকে সাংবাদিক খলিলুর রহমান মৃধাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বের তার মুক্তি দাবি করেছেন জেলার সাংবাদিকরা। তার মুক্তি দাবি করেছেন সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক ঝালকাঠি জেলা শাখার সভাপতি মো. ইলিয়াছ সিকদার ফরহাদ, সাধারণ সম্পাদক মহিন উদ্দিন তালুকদার, পৌর শাখার সাধারণ সম্পাদক ও ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. আক্কাস সিকদার । 



সাতদিনের সেরা