kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

গ্রামে থাকতে হলে ২ লাখ করে চাঁদা দিতে হবে!

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১০ মে, ২০২১ ১৮:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গ্রামে থাকতে হলে ২ লাখ করে চাঁদা দিতে হবে!

নবীগঞ্জ উপজেলা বাউসা ইউনিয়নের দেবপাড়া (বাশঁডর) গ্রামের আব্দুল মালিক, আব্দুল জলিল, বশির মিয়া, মাসুক ও আব্দুল মন্নাফের বিরুদ্ধে ৬ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ও হত্যার হুমকির অভিযোগ এনে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে একটি মামলা দায়ের করেছেন একই গ্রামের মৃত মাতাব উদ্দিনের পুত্র আব্দুল হাদি। মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য হবিগঞ্জ ডিবি পুলিশের ইনচার্জকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। 

মামলা এজহার সূত্রে জানা যায়, উল্লেখিত আসামিগণ গ্রামের খুনি, চাঁদাবাজ ও মামলাবাজ প্রকৃতির লোক। আসামিগণ গ্রামের জাহির আলী হত্যা মামলার জেল কাটা আসামি। বর্তমানে তারা জামিনে আছে। জামিনে গ্রামে এসে তারা তাসের রাজত্ব করছে। সস্প্রতি আসামিগণ মামলার বাদীসহ গ্রামের সোহেল ও কাফিকে বলে, গ্রামে থাকতে হলে জন প্রতি ২ লাখ করে টাকা চাঁদা দিতে হবে। তাদের কথা মতো চাঁদার টাকা না দিলে খুন ও দেশছাড়া করবে বলে হুমকি দেয়।

গত ৬ মে বৃহস্পতিবার বিকালে আব্দুল হাদি গ্রামের বাজারের নিত্য প্রয়োজনীয় কিনতে বাজারে যান। এ সময় আসামিগণ তাকে এবং স্বাক্ষী সোহেলকে শরিয়ত মিয়ার মার্কেটের সামনে ঘেরাও করে। আসামিগণ তাদের কথা মতো টাকা দিতে বলে। তাছাড়া মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়। এ সময় মাকের্টের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত রবিবার আব্দুল হাদি বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

হবিগঞ্জ জেলার ডিবির অফিসার ইনচার্জ মো. আলমিন জানান, নগবীঞ্জ দেবপাড়া গ্রামের একটি মামলার অভিযোগ পেয়েছি। এখনও তদন্ত করি নাই। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 



সাতদিনের সেরা