kalerkantho

শুক্রবার । ৪ আষাঢ় ১৪২৮। ১৮ জুন ২০২১। ৬ জিলকদ ১৪৪২

রক্তমাখা জামা পরেই চালকের আসনে ছিনতাইকারী, অতঃপর...

মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

৯ মে, ২০২১ ১৫:২৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রক্তমাখা জামা পরেই চালকের আসনে ছিনতাইকারী, অতঃপর...

আটক সাইফুল ইসলাম

কুমিল্লার মুরাদনগরে ছুরি দিয়ে গলায় পোঁচ মেরে অটোরিকশা ছিনতাই করার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলের এক কিলোমিটার দূর থেকে এক ছিনতাইকারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। গতকাল শনিবার রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাতভর অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত অপর ৩ জনকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

আহত অটোরিকশাচালক দেলোয়ার হোসেন ভোলা (২৫) উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের মনিরুল হকের ছেলে। আটক ছিনতাইকারী সাইফুল ইসলাম (২২) একই গ্রামের ছেনু মিয়ার ছেলে। 

মামলার অভিযোগ ও আহত আটোচালক দেলোয়ার হোসেন ভোলার সাথে কথা বলে জানা যায়, গত শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার যাত্রাপুর বাজার থেকে প্রেমিকার বাড়ি ঘোড়াশাল যাওয়ার উদ্দেশে হাতে ফল নিয়ে দেলোয়ার হোসেন ভোলার অটোরিকশা ভাড়া করে সাইফুল ইসলাম। পথিমধ্যে কোম্পানীগঞ্জ থেকে তুহিন, উত্তর ত্রিশ থেকে আবির ও দিলালপুর গ্রাম থেকে ইউসুফ নামে তিন বন্ধুকে অটোতে তোলেন সাইফুল।

ধনীরামপুর বাজারে গিয়ে রাস্তার গতিপথ পরিবর্তন করে গোমতীর ভেড়িবাঁধ দিয়ে যেতে বলেন সাইফুল। কিন্তু সেখান দিয়ে অটোচালক যেতে না চাইলে সাইফুল যুক্তি দেখান যে, ভেড়িবাঁধ দিয়ে গেলে তাড়াতাড়ি তার প্রেমিকার বাড়ি যাওয়া যাবে। তাই ভেড়িবাঁধ দিয়েই যেতে থাকেন ভোলা। ঘোড়াশাল কবরস্থানের নিকট পৌছাঁমাত্র পেছন থেকে ছুরি ধরে অটো থামাতে বলেন সাইফুল। আচমকা এ ঘটনায় গাড়ি থামিয়ে দেন চালক। তখন তার গলায় ধারালো ছুরি দিয়ে পোঁচ মেরে ধাক্কা দিয়ে অটো থেকে ফেলে দেওয়া হয়। আহত ভোলার চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যান। 

অপরদিকে, রক্তমাখা জামা নিয়ে চালকের আসনে বসে অটো চালাতে থাকেন সাইফুল। ধনীরামপুর বাজারের লোকজনের সন্দেহ হলে তাকে জিজ্ঞাসা করেন, আপনার শরীরে রক্ত কেন? এমন প্রশ্ন শুনে পেছনে বসে থাকা তিনজন দৌড়ে পালিয়ে যান। এতে করে তাদের সন্দেহ আরো ঘনিভূত হলে চালকের আসনে বসে থাকা সাইফুল ইসলামকে আটক করে পুলিশকে খবর দেন বাজারের লোকজন। পুলিশ এসে সাইফুল ও অটোরিকশাটি থানায় নিয়ে যায়। আটকের কিছুক্ষণের মধ্যেই খবর হয়, তারা চালকের গলা কেটে অটো ছিনতাই করে যাচ্ছিলেন। পুলিশ আটক সাইফুলকে নিয়ে শনিবার রাতভর বিভিন্ন জায়গায় অভিযানে গিয়েও ওই তিন সহযোগীকে আটক করতে পারেনি। আহত ভোলা বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।  

মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাদেকুর রহমান বলেন, সংঘবদ্ধ একটি চক্র এ ঘটনায় জড়িত। ধৃত সাইফুলের দুই সহযোগীদেরকে আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।



সাতদিনের সেরা