kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১০ আষাঢ় ১৪২৮। ২৪ জুন ২০২১। ১২ জিলকদ ১৪৪২

দর্শনায় ফেনসিডিল জব্দের সময় পুলিশের ওপর হামলা, আটক ৩

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি    

৯ মে, ২০২১ ১২:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দর্শনায় ফেনসিডিল জব্দের সময় পুলিশের ওপর হামলা, আটক ৩

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনায় ফেনসিডিল জব্দের সময় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে দর্শনার ঈশ্বরচন্দ্রপুর কবরস্থানের পাশে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশের এসআইসহ চারজন আহত হন। এসময় তিন মাদক কারবারিকে ২৬ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিলসহ আটক করে পুলিশ। 

আহতরা হলেন দর্শনা থানার এসআই মাহমুদুল হক, এএসআই শাহিন, এএসআই মামুন ও এএসআই ইদ্রিস আলী। তাদের উদ্ধার করে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। হামলার ঘটনায় দর্শনা পৌর এলাকার সীমান্তবর্তী ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আসকার আলীর ছেলে হাসেম আলী (৫২) ও তার ছেলে খায়রুল ইসলাম (৩২) এবং একই গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে আব্দুল হাকিমকে (২৮) আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় দর্শনা থানায় মাদক ও পুলিশের ওপর হামলায় একটি মামলা হয়েছে বলে জানিছে দর্শনা থানা পুলিশ। 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দর্শনা থানার এসআই মাহমুদুল হকের নেতৃত্বে ৫ পুলিশ কর্মকর্তা দর্শনার সীমান্তবর্তী ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামে মাদকবিরোধী অভিযান চালান। এসময় ১০৮ বোতল ফেনসিডিলসহ ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আসকার আলীর ছেলে হাসেম আলীকে (৫২) আটক করা হয়। এরপর খায়রুল ইসলাম ও আব্দুল হাকিমসহ অজ্ঞাত বেশ কয়েকজন অতর্কিত পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে।

খবর পেয়ে দর্শনা থানার ওসি মাহবুব রহমানের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে চারিদিক ঘিরে ফেলে অভিযান চালায়। এসময় ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আসকার আলীর ছেলে হাসেম আলী ও তার ছেলে খায়রুল ইসলাম এবং একই গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে আব্দুল হাকিমকে ২৬ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। 

দর্শনা থানার ওসি মাহবুব রহমান জানান, দর্শনা পৌর এলাকার সীমান্তবর্তী ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামে মাদকবিরোধী অভিযানে এলাকার শীর্ষ মাদক কারবারি হাসেম আলীকে ফেনসিডিলসহ আটক করা হলে পুলিশের ওপর হামলা করে চোরাকারবারিরা। পরে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ পৌঁছে তিন মাদক কারবারিকে আটক করে। এসময় চার পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন। এ ঘটনায় অন্যান্য আসামি ধরতে অভিযান অব্যাহত। দর্শনা থানায় মামলা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা