kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

কৃষক বান্ধব চেয়ারম্যান সুজন

পূর্বধলা (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি   

৭ মে, ২০২১ ২০:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কৃষক বান্ধব চেয়ারম্যান সুজন

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এখন পুরোদমে চলছে ধান কাটা। করোনা ঠেকাতে সারা দেশে চলছে লকডাউন। ফলে করোনা ও শ্রমিক সংকটের কারণে অনেক কৃষক তাদের পাকা ধান কাটতে পারছে না। এ অবস্থায় কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছেন পূর্বধলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সুজন। তিনি প্রতি রাতেই দলীয় নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে পালা করে ধান কেটে কৃষকের বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন।

উপজেলার ঘাগড়া গ্রামের কৃষক আব্দুল আজিজ জানান, তিনি এক একর জমিতে বোরো ধান আবাদ করেছিলেন। তার পুরো জমির ধান ইতিমধ্যে পেকে গেছে। ইতিমধ্যে কিছু ধান কাটেছেন। কিন্তু শ্রমিক সংকটের কারণে বাকি জমির পাকা ধান কাটতে পারছিলেন না। তাই মাঠে পাকা ধান নিয়ে তিনি প্রাকৃতিক দুর্যোগের আশঙ্কায় ছিলেন। এ অবস্থায় এগিয়ে এলেন পূর্বধলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সুজন। তিনি তার কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে স্বেচ্ছাশ্রমে পাকা ধান কেটে বাড়ি পৌছেঁ দিয়েছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বোরো মৌসুমে ২১ হাজার ৭৭০ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এর মধ্যে লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত আরো ৭০ হেক্টর বেশি জমিতে ধান আবাদ হয়েছে। অনুকূল আবহাওয়া, সেচ সুবিধা ও পর্যাপ্ত উপকরণ সরবরাহ থাকায় বাম্পার ফলন হয়েছে।

পূর্বধলা উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন বলেন, প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের উন্নয়নে অত্যন্ত আন্তরিক। তাই আমরা তাদের ধান কাটায় সহযোগিতা করছি। দিনে প্রচণ্ড রোদ ও রোজা থাকায় রাতেই চেষ্টা করছি এই বোরো মৌসুমে কৃষকের কিছুটা হলেও সহযোগিতা করতে। মাঠে যত দিন পাকা ধান থাকবে আমরাও ততদিন স্বেচ্ছাশ্রমে ধান কাটা অব্যহত রাখব।



সাতদিনের সেরা