kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

বীরাঙ্গনা আরতি রানীর ঘরে উপহার নিয়ে হাজির ভাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর    

৫ মে, ২০২১ ২১:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বীরাঙ্গনা আরতি রানীর ঘরে উপহার নিয়ে হাজির ভাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন

ঘরের সামনের গাছে ঝুলছে মৌসুমি ফল কাঁঠাল। ঘরের ভেতরে ঢুকে টিনের ঘরের অসংখ্য ছিদ্রের ফাঁকে দিনের আকাশ দেখা যাচ্ছে। কষ্টে থাকলেও ভরা হাসিমুখ নিয়ে অভাবের সংসারে বেঁচে আছেন ফরিদপুরের ভাঙ্গার বীরাঙ্গনা দেবী আরতি রানী ঘোষ।

স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, চার ছেলে ও দুই কন্যা সন্তানের মা হলেও অভাবের সংসার ছেড়ে দূরে চলে গেছে তার পাঁচ সন্তান। ছোট ছেলে কৃষ্ণ ঘোষের চায়ের দোকানের আয় ও মুক্তিযোদ্ধার সম্মানি ভাতা দিয়ে কোনোমতে ছিন্ন পাতার ঘরে বাস করেন বীরাঙ্গনা দেবী আরতি রানী ঘোষ। করোনার দুঃসময়ে তিনি কষ্টে আছেন।

এমন খবর পেয়ে ফরিদপুর জেলা প্রশাসক অতুল সরকার তার মানবিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন। আরতীর ভাঙা ঘরে উপহার সামগ্রী নিয়ে বুধবার হাজির হন ভাঙ্গার ইউএনও মো. আজিম উদ্দিন এবং ভাঙ্গা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সজীব আহমেদসহ উপজেলা প্রশাসনের একটি প্রতিনিধি।

তারা জানান, আমরা জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের নির্দেশে বীরাঙ্গনা দেবী আরতি রানী ঘোষের উপজেলার চান্দ্রা ইউনিয়নের মালিগ্রামের বাড়িতে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করে উপহার ও খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়েছি। তারা বলেন, উপজেলা প্রশাসন সব সময় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের পাশে থাকবে। এ আমাদের মানবিক অঙ্গীকার। 



সাতদিনের সেরা