kalerkantho

সোমবার । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৭ মে ২০২১। ০৪ শাওয়াল ১৪৪

স্বামী ধান কাটতে গেছেন, দরজা ভেঙে গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ!

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৪ মে, ২০২১ ১৭:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বামী ধান কাটতে গেছেন, দরজা ভেঙে গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ!

প্রতীকী ছবি।

রাজশাহীর বাঘায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এক গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার কলিগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় পুলিশ আজ মঙ্গলবার সকালে সুরুজ মালিথা নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। এদিকে, ভুক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে আজ তিনজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

ওই গৃহবধূর বরাদ দিয়ে বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, উপজেলার কলিগ্রাম এলাকার এক দিনমজুর গত ২৯ এপ্রিল ধানকাটা কাজের জন্য নাটোরে যান। সেই থেকে তাঁর স্ত্রী বাড়িতে একাই থাকতেন। এ সুযোগটি কাজে লাগিয়ে এলাকার এলু মালিথার ছেলে ঝুন্টু মালিথা (৩৫), রুবান মালিথার ছেলে সুরুজ মালিথা (৩৬) এবং গুলমাল প্রামাণিকের ছেলে রুজদার (৪২) সোমবার দিবাগত রাতে প্রধান টিনের দরজা ভেঙে ওই দিনমজুরের বাড়িতে প্রবেশ করে। 

এসময় শব্দ শুনে ঘরের দরজা খুলে বাইরে বের হন ওই গৃহবধূ। এই সুযোগে ওই তিন ব্যক্তি ধারালো হাসুয়া এবং চাকুর মুখে জিম্মি করে গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। এঘটনায় সকালে গৃহবধূ নিজে বাদী হয়ে বাঘা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পরে পুলিশ কলিগ্রাম এলাকা থেকে সুরুজ মালিথাকে গ্রেপ্তার করে।
   
ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, গৃহবধূ গণধর্ষণের মামলায় অন্য দুজনকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। গৃহবধূর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে প্রেরণ করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা