kalerkantho

সোমবার । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৭ মে ২০২১। ০৪ শাওয়াল ১৪৪

মান্দায় পাউবোর সম্পত্তিতে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

৪ মে, ২০২১ ১৩:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মান্দায় পাউবোর সম্পত্তিতে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

পাউবোর সম্পত্তিতে আবৈধভাবে নির্মাণ করা হচ্ছে পাকা স্থাপনা। ছবি: কালের কণ্ঠ

নওগাঁর মান্দা উপজেলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সম্পত্তিতে অবৈধভাবে পাকা স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিবনদের বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধের জায়গা দখল করে উপজেলার ভারশোঁ ইউনিয়নের বিলশ্রীকলা গ্রামে এসব স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে। ঘটনায় পাউবো নওগাঁর নির্বাহী প্রকৌশলী বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পানি উন্নয়ন বোর্ড নওগাঁ পোল্ডার-ডি উপপ্রকল্পের অধিগ্রহণকৃত সম্পত্তি জবরদখল করে পাকা স্থাপনা নির্মাণ করছেন উপজেলার বিলশ্রীকলা গ্রামের আবুল কালাম, মোতালেব হোসেন, ইউনুস আলী ও হায়দার আলী। এতে শিবনদের পূর্বতীরের বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধটি দুর্বল হয়ে পড়ছে। স্থাপনা নির্মাণ অব্যাহত রাখা হলে আগামী বর্ষা মৌসুমে বাঁধটি চরম ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়বে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিলশ্রীকলা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর রহমান, সাইফুদ্দীন, আফজাল হোসেন, আব্দুস সালামসহ আরো অনেকে জানান, আশির দশকে শিবনদের পূর্বতীর দিয়ে বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধটি নির্মাণ করা হয়। এরপর আর সংস্কার করা হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় দুইধারের মাটি কেটে সংকুচিত হয়ে পড়েছে বাঁধটি।

তারা আরো বলেন, বর্ষা মৌসুমে অতিরিক্ত বৃষ্টির পানিতে শিবনদ ভয়াবহ রূপ ধারণ করে। এসময় পানি বাঁধের কিনার পর্যন্ত উঠে আসে। চরম ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে পরানপুর ইউনিয়নের কালামারা ব্রিজ থেকে চৌবাড়িয়া ব্রিজ পর্যন্ত অন্তত ১৫ কিলোমিটার এলাকা। বাঁধটি রক্ষা করতে এসময় রাতজেগে পাহারা দেন স্থানীয় লোকজন। এ অবস্থায় ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধের বার্ম দখল করে স্থাপনা নির্মাণ বন্ধের জোর দাবি জানান তারা।

নওগাঁ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারি প্রকৌশলী আব্দুল মালেক বলেন, এসংক্রান্ত অভিযোগ প্রাপ্তির পর ঘটনাস্থলে লোক পাঠিয়ে সত্যতা পাওয়া যায়। পরবর্তীতে স্থাপনা নির্মাণ কাজ বন্ধের জন্য নির্মাণকারীদের নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এরপরও নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখা হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা