kalerkantho

বুধবার । ২৮ বৈশাখ ১৪২৮। ১১ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

বাবা সেজে জমজ নবজাতককে হাসপাতালে ভর্তি, এখন তাদের ঠাঁই মর্গে

রংপুর অফিস   

২৪ এপ্রিল, ২০২১ ১৮:৫৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাবা সেজে জমজ নবজাতককে হাসপাতালে ভর্তি, এখন তাদের ঠাঁই মর্গে

পতীকী ছবি।

বাবা সেজে জমজ দুই নবজাতককে (পুত্র সন্তান) নিয়ে চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এসেছিলেন রংপুরের পীরগঞ্জের পরিচয় দেওয়া বাবু নামের একজন। দুই নবজাতককে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করানোর পর সটকে পড়েন কথিত ওই বাবা। তবে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জমজ দুই নবজাতকের মৃত্যু হলেও লাশ নিতে আসেননি কেউ। তিনদিন ধরে হাসপাতালের লাশঘরে দুই নবজাতকের লাশ পড়ে আছে। তাদের বাবা-মা কে তা নিশ্চিত হতে পারছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ভোররাতে জমজ দুই নবজাতককে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মোস্তফা অসুস্থ জমজ দুই নবজাতককে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের হাসপাতালের ৯নম্বর শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করান। এসময় নবজাতক দুটির বাবা বলে পরিচয় দেন বাবু নামের এক ব্যক্তি। তার বাড়ি রংপুরের পীরগঞ্জে বলে জানানো হয়। সেই মোতাবেক হাসপাতালের ভর্তি রেজিস্ট্রারেও শিশু দুটির বাবার নাম বাবু, বাড়ি পীরগঞ্জ বলে উল্লেখ করা হয়। নবজাতক দুটিকে ওয়ার্ডে নেওয়ার পর বাবা পরিচয় দেওয়া বাবু পালিয়ে যান।

অসুস্থ জমজ নবজাতক দুটি চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ওইদিন দুপুর আড়াইটার দিকে মারা যায়। এরপর থেকে মৃত নবজাতক দুটির কোনো স্বজন না আসায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ লাশ দুটিকে হাসপাতালের লাশ ঘরে রাখেন। তিনদিন ধরে নবজাতক দুটির কোনো স্বজন মরদেহ নিতে না আসায় বিষয়টি থানায় অবগত করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

রংপুর কোতয়ালি থানার এসআই মামুনুর রশীদ জানান, জমজ দুই নবজাতককে ভর্তির সময় হাসপাতালের জরুরি বিভাগের রেজিস্ট্রারে যে নাম-ঠিকানা দেওয়া হয়েছে তাতে গ্রামের নাম উল্লেখ করা হয়নি। এমনকি কোনো ফোন নম্বরও ছিল না। ভর্তির ৩০ মিনিট আগে তাদের জন্ম হয়েছে বলে রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ করা হয়। ফলে বাবা পরিচয়দানকারী বাবু নামের কাউকেই খুঁজে বের করা সম্ভব নয়। নবজতকের ডিএনএ টেস্ট, পোস্টমর্টেম ও সুরতহাল রিপোর্ট করা হয়েছে। সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে লাশ আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

নবজাতক দুটিকে এভাবে হাসপাতালে ফেলে যাওয়া রহস্যজনক উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা তাদের অভিভাবককে খোঁজার চেষ্টা করছি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আজ শনিবার বিকেলে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. রেজাউল ইসলাম জানান, গত বৃহস্পতিবার থেকে লাশ দুটি হিমঘরে রয়েছে। জমজ দুই নবজাতকের লাশ নিতে কেউ না এলে শেষ পর্যন্ত বিধি অনুয়ায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা