kalerkantho

শনিবার । ২৫ বৈশাখ ১৪২৮। ৮ মে ২০২১। ২৫ রমজান ১৪৪২

আসামি নিয়ে পুলিশের 'লুকোচুরি'!

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২২ এপ্রিল, ২০২১ ১৭:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আসামি নিয়ে পুলিশের 'লুকোচুরি'!

গ্রেপ্তারকৃত মিসবাহ

নবীগঞ্জ বাউসা ইউনিয়নের দেবপাড়া (বাশডর) গ্রামের রয়মান আলীর পুত্র মিজবাহকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নবীগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত আমিনুর ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গতকাল বুধবার সকালে অভিযান চালিয়ে হবিগঞ্জ শহর থেকে আটক করেন বলে জানা গেছে।

পরিবারের দাবি, গত মঙ্গল রাত ১২টায় হবিগঞ্জ শহরের এক আত্মীয় বাড়ি থেকে মিজবাহকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে পুলিশ বলছে, একটি মারামারি মামলা এজহারভুক্ত আসামি হওয়ায় তাকে হবিগঞ্জ শহর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে, গ্রেপ্তার দেখালেও মিসবাহকে জেল হাজতে রাখা হয়নি বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা। এনিয়ে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে 'আতঙ্ক' দেখা দিয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামি নিয়ে পুলিশ 'লুকোচুরি' করছে বলেও দাবি মিসবাহ'র পরিবারের।

অন্যদিকে, পুলিশ বলছে তাকে নিয়ে মামলার অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে। এ কারণেই মেহমাহ জেল হাজতে নেই। মামলার তদন্তকারী কর্মর্কতা সম্রাট আহমেদ বলেন, তাকে জিজ্ঞাসাবাদ ও অন্য আসামির ধরতে তাকে নিয়ে অভিযান চলছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দেবপাড়া (বাশডর) গ্রামের হাসান আলীর ছেলে হৃদয় মিয়া থানায় ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় এজহারভুক্ত আসামি মিজবাহ মিয়া।

গ্রেপ্তারকৃত আসামির বাবা রয়মান মিয়া বলেন, আমার ছেলেকে নবীগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত আমিনুল ইসলাম গত মঙ্গলবার রাতে গ্রেপ্তার করে। তবে আমারা থানায় ও কোর্টে যোগযোগ করে মেসবাহ'র কোনো সন্ধান পাইনি। আমার ছেলেকে নিয়ে পুলিশ কেন এমন লুকচুরি করছে তা আমি জানি না। সে মামলার আসামি হলে কেন তাকে কোর্টে প্রেরণ করা হচ্ছে না এ নিয়ে দুশচিন্তায় আছি।

নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ডালিম আহমেদ মিজবাহকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বাশডর দেবপাড়া গ্রামের হৃদয় মিয়ার করা একটি মামলার এজহারভুক্ত আসামি মিসবাহ। তাকে জিজ্ঞাসাদের জন্য আমাদের হেফাজতে রাখা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা