kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ বৈশাখ ১৪২৮। ১১ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

কিশোর ভয়ঙ্কর! চুরিতে শুরু হত্যায় শেষ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   

২১ এপ্রিল, ২০২১ ২১:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোর ভয়ঙ্কর! চুরিতে শুরু হত্যায় শেষ

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় আকরাম আলী (১৬) নামে এক কিশোরের বিরুদ্ধে মুঠোফোন চুরির তথ্য বলে দেওয়ায় ইমন হোসেন (১২) নামে এক স্কুলছাত্রকে শ্বাসরোধে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। আজ বুধবার বিকেলে উপজেলার বড় পাঙ্গাসী ইউনিয়নের বড় কোয়ালিবেড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইমন ওই গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেলে। সে বড় কোয়ালিবেড় উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ছিল। এ ঘটনায় অভিযুক্ত আকরাম আলীকে আটক করেছে পুলিশ। সে একই গ্রামের সরোয়ার হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বড় পাঙ্গাসী ইউনিয়নের বড় কোয়ালিবেড় গ্রামে গত ১৫ এপ্রিল আবু সাঈদ নামে এক ব্যক্তির মুঠোফোন চুরি করে আকরাম আলী। চুরির বিষয়টি স্কুলছাত্র ইমন জানতে পেরে আবু সাঈদকে বিষয়টি জানিয়ে দিলে এতে ক্ষুব্ধ হয় আকরাম। আজ বুধবার বিকেলে গ্রামের মাঠে ইমন খেলতে গেলে আকরাম পরিকল্পিতভাবে তাঁকে ডেকে পাশের ভুট্টাক্ষেতে নিয়ে গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে মরদেহ ফেলে রাখে। বিষয়টি বুঝতে পেয়ে ভুট্টাক্ষেতের মালিক গোলাপ মিয়া স্থানীয়দের ডেকে আকরামকে আটক করে পুলিশকে জানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আকরামকে আটক করে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক কুমার দাস  জানান, লাশটি উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে। অভিযুক্ত কিশোরকে আটক করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠান হবে বলে জানান তিনি।



সাতদিনের সেরা